চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মুন্সিগঞ্জে লাশ নিয়ে মিছিল, দোকান ভাঙচুর

মুন্সিগঞ্জে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত এক ব্যক্তির লাশ নিয়ে মিছিল করেছে স্থানীয়রা। সে সময় একাধিক দোকান ও ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান ভাঙচুর করে বিক্ষুব্ধরা।

শনিবার বিকালে মিরকাদিম পৌরসভার মিরাপাড়া থেকে লাশ নিয়ে মিছিল শুরু হয়ে ঈদগাহ মাঠে গিয়ে শেষ হয়।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার দিবাগত রাতে ঢাকায় চিকিৎসাধীন মারা যান মুন্সিগঞ্জের মিরকাদিমে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত স্থানীয় আওয়ামী লীগের কর্মী ফিরোজ (৩৫)।

তিনি মিরকাদিমের মিরাপাড়া এলাকার মৃত রব ফকিরের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে নিহতের ভাই উজ্জ্বল বলেন, ‘গত বৃহস্পতিবার মিরাপাড়া এলাকায় রাত সাড়ে ১১টায় বাসা থেকে বের হয় আমার ভাই। এরপর নির্জন একটি স্থানে তার মাথার পিছনে লোহার পাইপ দিয়ে আঘাত করা হয়। মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তাকে ধারালো অস্ত্র দ্বারা আঘাত করা হয়। এক পর্যায়ে স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে শুক্রবার দিবাগত রাত ১১ টায় মারা যায়।’

বিজ্ঞাপন

‘‘আমার ভাই মিরকাদিম পৌরসভার আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম আজাদের সমর্থক। এর জের ধরেই সাবেক মেয়র শহিদুল ইসলাম শাহীনের সমর্থকরা হামলা করে খুন করেছে।’’

তবে ঘটনায় জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছেন সাবেক মেয়র শহিদুল ইসলাম শাহীন।

ঘটনায় জড়িত সন্দেহে শনিবার সকালে মোহাম্মদ আল-আমিন নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়। এছাড়াও আটক করা হয়েছে আরো এক ব্যক্তিকে।

এই বিষয়ে মুন্সীগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক বলেন, ‘ওই ঘটনায় গত শুক্রবার দুপুরে মারধরের মামলা হয়েছিল। নিহত ব্যক্তির করা মামলাটি এখন হত্যা মামলায় রূপান্তরিত হয়েছে।’

‘‘অভিযুক্ত মোহাম্মদ আল-আমিনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের আটকের চেষ্টা চলছে।’’