চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মুজিববর্ষ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ পরিষদের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করেছে বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ পরিষদ।

রোববার বিকালে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট উদ্যানে বৃক্ষ রোপণের মধ্যদিয়ে কর্মসূচি উদ্বোধন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।

বিজ্ঞাপন

সভাপতির বক্তব্যে ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা দিয়েছেন ২ কোটি বৃক্ষ রোপণ করতে হবে সারাদেশে। এই কর্মসূচিতে শরীক হতে চায় বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ পরিষদ। তাই আজ আমরা বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেছি, এর অংশ হিসেবে সারাদেশের বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ পরিষদের সদস্যরা ধারাবাহিকভাবে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচি পালন করবে।

বিজ্ঞাপন

প্রধানবক্তার বক্তব্যে বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ পরিষদের মহাসচিব ও ক্ষমতাসীনদল আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম বলেন: বাংলাদেশ দুর্যোগ কবলিত দেশ। এখানে খরা, বন্যা, মহামারি, বায়ুদূষণ, ঘুর্ণিঝড়, জলবায়ু পরিবর্তনসহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ প্রায় লেগে থাকে। এর মোকাবিলা করতে হলে আমাদের বেশি বেশি বৃক্ষরোপণ করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা’র আহ্বানে বনজ, ফলজ এবং ঔষধি এই তিন ধরনের গাছ রোপনের এবং দেশব্যাপী বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির সফল করার লক্ষ্যে সারাদেশে বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ পরিষদের সদস্যরা কাজ করছে।

বিজ্ঞাপন

যোগ করেন: এ কর্মসূচি আগামী তিনমাস পর্যন্ত কার্যক্রম অব্যাহত রাখবে। ১৭ কোটি লোকের দেশ বাংলাদেশ, সবাই যদি তিনটি করে গাছ লাগান এবং পরিচর্যার দায়িত্ব নেন; তাহলে ৫১ কোটি গাছ রোপণ করা সম্ভব হবে। যার ফলে প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলার পাশাপাশি দেশ অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হবে।

সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম

নাছিম আরো বলেন: জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব এবং সকল প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা করতেই আমাদের জননেত্রী শেখ হাসিনা মুজিব শতবর্ষে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি ঘোষণা করছেন। তার এই কর্মসূচিকে সফল করতে আমরা বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ পরিষদের সদস্যরা সদা প্রস্তুত ।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন, বঙ্গবন্ধু কৃষিবিদ পরিষদের যুগ্ম মহাসচিব আমিনুল ইসলাম। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, কেআইবি’র মহাসচিব- খায়রুল আলম প্রিন্স, কেআইবি’র ঢাকা মেট্রো যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক – আ ফ ম মাহবুবুল হাসান, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় নেতা কাজী মোয়াজ্জেম হোসেনসহ অনেকে।