চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মিয়ানমার সেনাবাহিনী পরিচালিত ৫টি চ্যানেল সরালো ইউটিউব

মিয়ানমারের সেনাবাহিনী দ্বারা পরিচালিত ৫টি চ্যানেল সরিয়ে দিয়েছে ইউটিউব। সেনা অভ্যুত্থানের পরে চলমান বিক্ষোভের মধ্যেই এমনটা করেছে ইউটিউব। 

শুক্রবার ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্মটি জানায়, তাদের নির্দেশনাবলীর সঙ্গে মিল রেখেই এসব চ্যানেল সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ইউটিউব যেসব চ্যানেল সরিয়ে দিয়েছে সেগুলো হলো: স্টেট নেটওয়ার্ক, এমআরটিভি (মিয়ানমার রেডিও অ্যান্ড টেলিভিশন), সেনা নিয়ন্ত্রিত মিয়াওয়াড্ডি মিডিয়া, এমডব্লিউডি ভ্যারাইটি এবং এমডব্লিউডি মিয়ানমার।

গুগলের প্যারেন্ট প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেটের মালিকানাধীন ইউটিউব জানিয়েছে, আমাদের নির্দেশিকা ও প্রযোজ্য আইনের ভিত্তিতে আমরা বেশ কিছু চ্যানেলের সমাপ্তি করেছি এবং কিছু ভিডিও সরিয়ে দিয়েছি।

অন্যদিকে সেনা শাসনের সমাপ্তি এবং আটক হওয়া নেতাদের মুক্তির দাবিতে দেশটিতে বিক্ষোভ চলছেই। শুক্রবারও সেই বিক্ষোভে গুলি চালায় পুলিশ। তাতে একজনের মৃত্যু হয়।

এর আগে সেনাবাহিনী ও বেসামরিক সরকারের মধ্যে নির্বাচনে জালিয়াতি নিয়ে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থান ঘটে।

তার পরপরই এনএলডির শীর্ষ নেত্রী অং সান সু চি, দেশটির প্রেসিডেন্ট এবং মন্ত্রিসভার সদস্যসহ প্রভাবশালী রাজনীতিকদের আটক করে সেনাবাহিনী।

পরে সেনাবাহিনী এক ঘোষণায় জানায়, আগামী ১ বছরের জন্য মিয়ানমারের ক্ষমতায় থাকবে তারা।

গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকারকে সরিয়ে দিয়ে সেনা অভ্যুত্থানের ঘটনায় হাজার হাজার মানুষ বিক্ষোভ করতে রাস্তায় নেমে আসে। বড় জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞা ও রাত্রিকালীন কারফিউ থাকা সত্ত্বেও তারা বিক্ষোভ দেখায়। এরই মধ্যে সেখানে প্রাণ হারিয়েছে অর্ধশতাধিক মানুষ।