চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মিয়ানমারে পাথর খনি ধসে শতাধিক শ্রমিক নিহত

মিয়ানমারে ভয়াবহ পাথর খনি ধসে প্রায় শতাধিক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। দেশটির উত্তর দিকে এই দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১১৩ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে মিয়ানমার দমকল বিভাগ। এখনও বাকিদের উদ্ধারে কাজ করছে দেশটির দমকল বিভাগ।

একটি ফেসবুকে পোস্টে দমকল বাহিনী জানিয়েছেন, উত্তর মিয়ানমারের কাছিন রাজ্যের জেড-সমৃদ্ধ পাক্তান এলাকার খনিতে অলঙ্কারে ব্যবহৃত পাথর সংগ্রহ করছিলেন খনি শ্রমিকরা। গত কয়েকদিন যাবত তুমুল বৃষ্টির কারণে ‘কাদার স্রোত’-এ চাপা পড়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সাধারণত জেড হল একধরনের সবুজ পাথর, যা অলঙ্কারে ব্যবহৃত হয়। সেই অলঙ্কারের চাহিদাও বেশি।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

দেশটির পুলিশকে উদ্ধৃত করে বিবিস জানিয়েছে, সেখানে কর্মরত কিছু শ্রমিক প্রবল বৃষ্টির কারণে গত বুধবার সেখানে কাজ করতে অস্বীকৃতিও জানায়। তারপর আজকেই এই দুর্ঘটনা ঘটে। এখনও উদ্ধারকাজ চলছে।

পাথর খনির শ্রমিক মুয়াং খাইয়িং সংবাদ মাধ্যম রয়র্টাসকে বলেন, হঠাৎ করে পাইলিং এর টাওয়ার ভেঙ্গে তার কাছে এসে পড়ে, তারপর সবাই চিৎকার করে দৌড়াদৌড়ি ছোটাছোটি করতে থাকে। মাত্র এক মিনিটের মধ্যে পাহাড়ের নিচে যারা কাজ করছিলেন তারা অদৃশ্য হয়ে গেল। অনেকেই আটকে পড়ে বাঁচার জন্য চিৎকার করছিল কিন্তু কেউ তাদের সাহায্য করতে পারেনি।

উল্লেখ্য, জেড-সমৃদ্ধ পাক্তান এলাকার খনিগুলির পরিকাঠামো অত্যন্ত নিম্নমানের বলে একাধিক সময়ে অভিযোগ উঠেছে। খনির মধ্যে প্রায়শই ধসসহ অন্যান্য দুর্ঘটনার খবর পাওয়া যায়। তাতে অনেকের মৃত্যুও হয়েছে। খনিগুলির আশপাশে যে গ্রামগুলি আছে, সেখানকার বাসিন্দারাও সারাক্ষণ আতঙ্কে কাটান।

গত বছরও এরক এক পাথরের খনিতে প্রায় ১০০ জনের মৃত্যু হয়। বছরে মিয়ানমার জেড পাথরের প্রায় ৩০ বিলিয়ন ডলারের বেশি ব্যবসা করে থাকে।