চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মিয়ানমারে আবার গুলি, ৩৮ বিক্ষোভকারীর মৃত্যু

মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে অব্যাহত বিক্ষোভে সামরিক বাহিনীর গুলিতে বুধবার প্রাণ হারিয়েছে অন্তত ৩৮ জন বিক্ষোভকারী।

এই ঘটনার পর জাতিসংঘ দিনটিকে সেনা অভ্যুত্থান হওয়ার পর সবচেয়ে ‘রক্তাক্ত দিন’ হিসেবে মন্তব্য করেছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মিয়ানমারে জাতিসংঘের দূত ক্রিস্টিন শারনার বুর্গেনার বলেন, দেশটি থেকে খুবই মর্মান্তিক কিছু ভিডিও আসছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যরা বুলেট ও রাবার বুলেট ছোঁড়ে।

মিয়ানমারের বিক্ষোভে এমন অবদমনমূলক কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে বিশ্ববাসী কিন্তু মিয়ানমার সেসবকেই উপেক্ষা করে চলেছে।

বুধবারের এই মৃত্যুর ঘটনার পরে যুক্তরাজ্য জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সভা আহ্বান করেছে। আর যুক্তরাষ্ট্র জানিয়েছে, মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে আরো পদক্ষেপ নেওয়ার কথা ভাবছে তারা।

বিজ্ঞাপন

ক্রিস্টিন শারনার বুর্গেনার বলেছেন, মিয়ানমারে সেনাবিরোধী বিক্ষোভে প্রাণ হারিয়েছে প্রায় ৬০ জন আর আহত হয়েছে আরো অনেকে।

এর আগে ২৮ ফেব্রুয়ারি বিক্ষোভে সামরিক বাহিনীর গুলিতে প্রাণ হারায় অন্তত ১৮ জন।

সেনাবাহিনী ও বেসামরিক সরকারের মধ্যে নির্বাচনে জালিয়াতি নিয়ে বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থান ঘটে।

তার পরপরই এনএলডির শীর্ষ নেত্রী অং সান সু চি, দেশটির প্রেসিডেন্ট এবং মন্ত্রিসভার সদস্যসহ প্রভাবশালী রাজনীতিকদের আটক করে সেনাবাহিনী।

পরে সেনাবাহিনী এক ঘোষণায় জানায়, আগামী ১ বছরের জন্য মিয়ানমারের ক্ষমতায় থাকবে তারা।

গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকারকে সরিয়ে দিয়ে সেনা অভ্যুত্থানের ঘটনায় হাজার হাজার মানুষ বিক্ষোভ করতে রাস্তায় নেমে আসে। বড় জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞা ও রাত্রিকালীন কারফিউ থাকা সত্ত্বেও তারা বিক্ষোভ দেখায়।