চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’ ঠাকুরগাঁওয়ের শিরিন শিলা 

প্রথমবারের মতো বিশ্বমঞ্চে ‘মিস ইউনিভার্স’ সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। আর প্রথমবারের মতো দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্বের সুযোগ পেলেন ঠাকুরগাঁওয়ের মেয়ে শিরিন আক্তার শিলা।

বুধবার (২৩ অক্টোবর) রাতে বসুন্ধরা কনভেশনের নবরাত্রী হলে জমকালো আয়োজনের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠিত হলো ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’-এর গ্র্যান্ড ফিনালে। সেখানে সেরা ১০ প্রতিযোগীর মধ্যে বিজয়ী হন শিরিন আক্তার শিলা।

বিজ্ঞাপন

চ্যাম্পিয়ন শিলার মাথায় ৭৫০টি ডায়মন্ড খচিত প্রায় ২০ লাখ টাকা মূল্যের শৈল্পিক মুকুট (ক্রাউন) পরিয়ে দেন সাবেক মিস ইউনিভার্স (১৯৯৪) ও বলিউড তারকা সুস্মিতা সেন। যিনি এই আয়োজনের বিশেষ আকর্ষণ ও অতিথি বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। মূলত এ আয়োজনের জন্যই বুধবার (২৩ অক্টোবর) দুপুরে ঢাকায় আসেন।

সুন্দরী প্রতিযোগিতার এই আসরে সুস্মিতা যোগ দেন রাত সোয়া ৯ টার দিকে। মঞ্চে এসে বলিউডের ব্লকবাস্টার ‘ম্যায় হু না’ ছবির এই নায়িকা বলেন: মিস ইউনিভার্সের প্ল্যাটফর্ম-এর মাধ্যমে আমাকে সারা বিশ্ব চিনেছে। এ ধরণের আন্তর্জাতিকমানের আয়োজনে অংশ নেয়ার জন্য ভাষা ব্যাপার না, আত্মবিশ্বাসটাই আসল।

প্রথম ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’ হওয়ার অনুভূতি জানিয়ে আবেগতাড়িত হয়ে শিরিন আক্তার শিলা বলেন, আজ থেকে আমিই বাংলাদেশ। আমার বাবা একজন সৈনিক(বিজিবি)। বাবার মতো আমিও দেশের জন্য কাজ করবো।

শিলার বাড়ি ঠাকুরগাঁও এর পীরগঞ্জে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পদার্থবিজ্ঞানে তৃতীয় বর্ষে অধ্যয়নরত আছেন।

‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’-এর চেয়ারম্যান রিজওয়ান বিন ফারুক জানান, দক্ষিণ কোরিয়ায় আগামী ১৯ ডিসেম্বর বসবে ‘মিস ইউনিভার্স’ প্রতিযোগিতার ৬৮ তম আসর। ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’- প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়ন হয়ে শিলা বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করবেন।

এ প্রতিযোগিতায় প্রথম রানারআপ হয়েছেন আলিশা ইসলাম এবং দ্বিতীয় রানারআপ (তৃতীয়) হয়েছেন জেসিয়া ইসলাম।

গত সেপ্টেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময়ে শুরু হওয়া ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় সারাদেশ থেকে কয়েক হাজার তরুণী আবেদন করেন। সেখান থেকে বিভিন্ন ধাপে যাচাই বাছাই করে গ্র্যান্ড ফিনালেতে রাখা হয় সেরা ১০ প্রতিযোগী।

তারা হলেন: তামান্না ইসরাত সোহানী, মারিয়া মুমু, সানোবার তাইফা, আফলা আম্রান, শিরিন আক্তার শিলা, জেসিয়া ইসলাম, স্মৃতি আক্তার, ইরানা ইশরাত, আলিশা ইসলাম, তসিবা আনিতা ইসলাম। তারা প্রত্যেকেই ১৮ থেকে ২৮ বয়সী অবিবাহিত নারী।

এই ১০ জনের মধ্য থেকে নির্বাচিত করা হয় সেরা ৫ জন। তাদের মধ্যে ছিলেন মারিয়া মুমু, জেসিয়া ইসলাম, শিরিন আক্তার শিলা, আলিশা ইসলাম, আলফা আম্রান।

‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’-এ মূল বিচারক হিসেবে ছিলেন সংগীত তারকা ও অভিনেতা তাহসান খান, রূপ বিশেষজ্ঞ কানিজ আলমাস খান, হেরিটেজ ক্র্যাফটসের তুতলি রহমান তুতলি রহমান, রুবাবা দৌলা ও ফারজানা চৌধুরী, সাবেক ক্রিকেটার আতাহার আলী খান, প্রমুখ।

ছবি: নাহিয়ান ইমন

Bellow Post-Green View