চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘মিশন এক্সট্রিম’ আগেই শেষ, চলছে সিক্যুয়েলের শুটিং!

‘বাহুবলী দ্য বিগিনিং’ ও ‘বাহুবলী দ্য কনক্লুশন’ কিংবা ‘কেজিএফ চ্যাপ্টার-১’ ও ‘কেজিএফ চ্যাপ্টার-২’-এর মতো করে বাংলাদেশে নির্মিত হচ্ছে দুই পর্বের ছবি। এমন গুঞ্জনই ঢাকাই ইন্ডাস্ট্রিতে! দুই পর্বে নির্মিতব্য ছবির নাম ‘মিশন এক্সট্রিম’! কী, ছবির নাম শুনে অবাক হচ্ছেন?

গত বছরেই শেষ হয়েছে ‘মিশন এক্সট্রিম’ ছবির গুরুত্বপূর্ণ ৯০ শতাংশের শুটিং। ১৭ অক্টোবর চ্যানেল আই অনলাইনকে জানিয়েছিলেন ছবির দুজন পরিচালকের একজন। গত সপ্তাহে আবার শুটিং শুরু হয়েছে। শোনা যাচ্ছে, সব শিল্পীদের নিয়ে শুটিং চলবে পুরো জানুয়ারি! প্রশ্ন হচ্ছে, ১০ শতাংশ শুটিং বাকি থাকলে এতো সময় কেন লাগবে? কিংবা শুটিংয়ে কেনই বা উপস্থিত থাকতে হচ্ছে ছবির সব কলাকুশলীদের?

‘মিশন এক্সট্রিম’ নিয়ে শোনা গেল চমকপ্রদ খবর! ছবিটি নাকি দুই পর্বের সিক্যুয়াল! প্রথম পর্বের শুটিং শেষ করে বর্তমানে রাজধানীর উত্তরায় চলছে দ্বিতীয় পর্বের শুটিং!

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ছবির একজন শিল্পী চ্যানেল আই অনলাইনকে জানান, ‘মিশন এক্সট্রিম’-এর গল্প শেষাংশে টানটান উত্তেজনা রেখে শেষ করা হয়েছে। সেখান থেকে ‘টু বি কন্টিনিউড’ রেখে মিশন এক্সট্রিমের সিক্যুয়ালে শুটিং করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

প্রথমটির নাম মিশন এক্সট্রিম হলেও পরের নাম এখনও চূড়ান্ত হয়েছে কিনা সঠিক তথ্য দিতে পারলেন না ওই শিল্পী।

এও জানা যায়, মিশন এক্সট্রিমের সব অভিনয় শিল্পী, নির্মাতা, টেকনিক্যাল ক্রু’রাই পরের কিস্তিতে থাকছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই শিল্পী মিশন এক্সট্রিমের পরের এ কিস্তিতে ‘এপিসোড টু’ বলে দাবী করলেন। তার ভাষায়, একটি ছবিকে দুই ভাগে দেখানো হচ্ছে। রোযার ঈদে মিশন এক্সট্রিম মুক্তি পেলে হয়তো কোরবানির ঈদে পরের কিস্তি মুক্তি দেওয়া হবে।

‘মিশন এক্সট্রিম’ ছবির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একাধিক শিল্পী নাম প্রকাশ না করার শর্তে চ্যানেল আই অনলাইনকে জানায়, আগে শুটিং যা হয়েছে ব্যাপ্তিতে তা প্রয়োজনের বেশি। বর্ধিত অংশ দিয়েই মিশন এক্সট্রিমের পরের কিস্তি নির্মাণ করা হচ্ছে। গত সপ্তাহ থেকে আরিফিন শুভ, ঐশী, তাসকিন, সাদিয়া নাবিলা, মাজনুন মিজান, মনোজ, সুদীপসহ প্রত্যেকেই শুটিং করছেন। শুটিং চলবে জানুয়ারির শেষ সপ্তাহ পর্যন্ত।

মিশন এক্সট্রিম যৌথভাবে পরিচালনা করছেন ফয়সাল আহমেদ ও সানি সানোয়ার। পরিচালক ফয়সাল আহমেদ চ্যানেল আই অনলাইনকে দ্বিতীয় কিস্তির শুটিংকে ‘রিউমার’ বলে দাবি করলেও বলেন, ‘জানুয়ারি মাস পুরোটাই শুটিং চলবে’। এরপর শুটিং ব্যস্ততার কথা বলে ফোন রেখে দেন। তবে, বিশ্বস্ত সূত্র নিশ্চিত করেছে, বর্তমানে মিশন এক্সট্রিমের পরের কিস্তির শুটিং চলছে।

২০১৯ সালের ২০ মার্চে ঢাকায় মিশন এক্সট্রিম ছবির শুটিং শুরু হয়। বাংলাদেশসহ শুটিং হয়েছে দুবাইতে। ঢাকা অ্যাটাকের পর ‘কপ ক্রিয়েশন’র ব্যানারে নির্মিত বাংলাদেশের দ্বিতীয় পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলার ছবি এটি। ক্রাইম, থ্রিলার সাসপেন্স, অ্যাকশন সবকিছুই থাকছে এখানে। ৩০ নভেম্বর সন্ধ্যায় এফডিসির একটি শুটিং ফ্লোরে জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে তা উন্মোচিত মিশন এক্সট্রিমের ফার্স্টলুক।

বিজ্ঞাপন