চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মিথ্যা ‘রিলিজ ক্লজে’ ঝুলে আছে মেসি-বার্সা চুক্তি!

বার্সেলোনা ছাড়ার ব্যাপারে নিজের মত জানিয়ে দিয়েছেন লিওনেল মেসি, থাকতে চাইছেন না প্রিয় ক্লাবে। অন্যদিকে বার্সার দাবি, তাদের বেধে দেয়া ৭০০ মিলিয়ন রিলিজ ক্লজের বাইরে এক ইউরো কমেও অধিনায়ককে ছাড়বে না।

এমন ঠোকাঠুকির বিপরীতে বোম ফাটিয়েছে রেডিও কাডেনা সার। তাদের দেয়া তথ্যানুসারে, যে রিলিজ ক্লজ দিয়ে মেসি আর অন্য ক্লাবগুলোর মধ্যে দেয়াল বানিয়ে রেখেছে বার্সা, তার পুরোটাই মিথ্যা। মেসির নামে ৭০০ মিলিয়ন ইউরোর রিলিজ ক্লজ থাকলেও চুক্তির শেষ বছরে সেটি অকার্যকর হয়ে যাওয়ার কথা!

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মেসির সঙ্গে বার্সার সবশেষ চুক্তির একটি কপি হাতে এসেছে কাডেনা সারের। কপিটি ধরে রেডিওটির দাবি, মেসির সঙ্গে বার্সার আসল চুক্তি ছিল তিন বছরের। ২০১৭ সালে আর্জেন্টাইন তারকার সঙ্গে করা বার্সার নতুন চুক্তিতে উল্লেখ ছিল ২০২০ সালের মৌসুম শেষের আগ পর্যন্ত মেসিকে কিনতে হলে ৭০০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করতে হবে যেকোনো ক্লাবকে।

বিজ্ঞাপন

মূল চুক্তি ২০২১ সাল পর্যন্ত হলেও শেষ বছরটাকে রাখা হয়েছিল ‘অপশনাল’ হিসেবে। মানে, মেসি চাইলে ২০২০-২১ মৌসুমে বার্সায় খেলতে পারেন অথবা চলে যেতে চাইলে কোনো ট্রান্সফার ফি দেয়া লাগবে না!

জনপ্রিয় স্প্যানিশ ক্রীড়া সাংবাদিক গিলেম বালাগ জানাচ্ছেন, চুক্তির বিষয়টি মেসির জানা। সে কারণেই রোববারের করোনা টেস্টে তিনি অংশ নেবেন না। আর কাডেনা সারের দাবি, মেসি যদি এখন ম্যানচেস্টার সিটিতে যেতেই চান, তবে যেকোনো ট্রান্সফার ফিতেই যেতে পারবেন। তাকে আটকানোর আইনি ক্ষমতা হারিয়ে বসেছে বার্সা!