চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মিডিয়ার কাজ খবর খোঁজা, নারী খোঁজা নয়: রিয়ার পক্ষে নারীবাদীরা

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই আঙুল তোলা হচ্ছে রিয়া চক্রবর্তীর দিকে। ভারতের সংবাদমাধ্যম যেভাবে তাড়া করে বেড়াচ্ছে, হেনস্থা করেছে, যেভাবে তার দোষ প্রমাণিত হবার আগেই তাকে দোষী সাব্যস্ত করে ফেলেছে তা নিয়ে সমালোচনায় সোচ্চার হয়েছেন চলচ্চিত্র তারকা, নির্মাতা ও নারীবাদীরা।

রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে মিডিয়ার আচরণের প্রতিবাদে ২০০০-এর বেশি মানুষ একটি খোলা চিঠিতে সাক্ষর করেছেন। এতে সাক্ষর করেছেন অনুরাগ কাশ্যপ, মিরা নাইর ফ্রিদা পিন্টো, জোয়া আখতার, ফারহান আখতার, অলঙ্কৃতা শ্রীবাস্তব, গৌরি সিন্দে, রীমা কাগটি, রুচি নারাইন, রাশিকা দুগাল, নিত্য মেহরাম আমরুতা সুভাস, মিনি মাথুর, দিয়া মির্জা এবং কুব্বরা সাইত।

বিজ্ঞাপন

চিঠিতে লেখা হয়েছে, কমবয়সী নারীকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ খবর ছড়িয়ে বিকৃত আনন্দ পাচ্ছে চ্যানেলগুলো। অথচ সালমান খান এবং সঞ্জয় দত্তের বেলায় এমনটা হয়নি। চিঠিতে অনুরোধ করা হয়েছে রিয়া চক্রবর্তীর ক্ষেত্রেও যেন এই অভিনেতাদের মতোই সম্মান প্রদর্শন করা হয় খবর প্রকাশের সময়।

বিজ্ঞাপন

লেখা হয়েছে, ‘একজন কমবয়সী নারীকে শিকারে পরিণত করা খুব সহজ, কারণ অনেকেই তাকে বিশ্বাস করবেন না, চরিত্র নিয়ে প্রশ্ন তুলবেন, স্বাধীনতা নিয়ে সমালোচনা করবেন। এধরনের গল্প তৈরি করা খুবই সস্তা কাজ।’

আরও লেখা হয়েছে, ‘আমরা এই চিঠি লিখেছে নিউজ মিডিয়ার উদ্দেশে, তারা যেন রিয়া চক্রবর্তীকে নিয়ে এধরণের বিবেক বর্জিত খবর প্রচার না করে। মিডিয়ার কাজ খবর খোঁজা, নারী খোঁজা নয়।’

মাদককান্ডে রিয়া চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। রিয়ার পাশাপাশি তার ভাই সৌভিককেও গ্রেফতার করা হয়।