চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মায়াঙ্কের ডাবল সেঞ্চুরিতে রান পাহাড়ে ভারত

শেষ বিকেলে বিপদে প্রোটিয়ারা

ওপেনার হিসেবে নিজের প্রথম টেস্ট ইনিংসকে সেঞ্চুরি দিয়ে রাঙিয়েছেন রোহিত শর্মা। তার সঙ্গী মায়াঙ্ক আগারওয়াল ছাড়িয়ে গেলেন আরও অনেকটা দূর। নিজের প্রথম সেঞ্চুরিকে ডাবলে রূপ দিয়েছেন ভারতীয় ওপেনার। দুই বিশাল ইনিংসে সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে রানপাহাড় গড়েছে ভারত।

বিশাখাপত্তম টেস্টের দ্বিতীয় দিনে ৭ উইকেটে ৫০২ রান করার পর প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেন কোহলি। জবাবে ৩৯ রান তুলতেই ৩ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে সাউথ আফ্রিকা।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার সেঞ্চুরি যে পাচ্ছেন তার ইঙ্গিত প্রথমদিনেই দিয়েছিলেন মায়াঙ্ক। বৃষ্টির কারণে থামতে হয়েছিল ৮৪ রানে। নতুন দিনে নেমে আর দেরি করেননি। ২০৪ বলে তুলেছেন ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি।

বিজ্ঞাপন

প্রথম সেঞ্চুরি। ইনিংসকে তাই যেন আরও রাঙিয়ে তোলার প্রচেষ্টা নিলেন মায়াঙ্ক। পরের ১৫০ বলে তুলে নিয়েছেন দ্বিতীয় সেঞ্চুরিও। শেষ পর্যন্ত ৩৭১ বল খেলে যখন সাজঘরে ফিরছেন, নামের পাশে ২১৫ রান। ২৩ চারের সঙ্গে যাতে ছক্কার মার ৬টি।

রান বাড়ানোর তাড়া কিংবা ডিন এলগারের বলে ড্যান পিয়েডট দারুণ ক্যাচটা নেয়ায় ইনিংসটি আর বড় হয়নি মায়াঙ্কের।

বিজ্ঞাপন

মায়াঙ্ক পারলেও টেস্টে নিজের আগের সেরাকে ছাপিয়ে যেতে পারেননি রোহিত। এক মাত্র রান দূরে থেকে আউট হয়েছেন ২৪৪ বলে ১৭৬ করে। ওপেনিং সঙ্গীর মতো তার চারের সংখ্যা ২৩, ছক্কা ৬টি।

রোহিত ফেরার আগে ৩১৭ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়েছেন মায়াঙ্কের সঙ্গে। যেটা সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে ভারতের সর্বোচ্চ রানের টেস্ট ওপেনিং জুটি। আর সবমিলিয়ে ভারতের তৃতীয় সর্বোচ্চ উদ্বোধনী জুটি।

দুই ওপেনার বড় ইনিংস খেলায় বাকিদের আর ইনিংস টানার দরকার পড়েনি। তৃতীয় সর্বোচ্চ ৩০ এসেছে রবিন্দ্র জাদেজার ব্যাটে।

শেষ বিকালে বিপদে পড়া সফরকারীরা মার্করাম (৫), ডি ব্রুইন (৪) ও পিয়েডটকে (০) হারিয়েছে। এলগার ২৭ ও বাভুমা ২ রানে পরের দিনের লড়াই শুরু করবেন।

অশ্বিন ২টি ও জাদেজা একটি উইকেট তুলে তাদের জন্য বিপদঘণ্টা তো বাজিয়েই রেখেছেন।