চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মাহমুদউল্লাহদের ১ রানে হারিয়ে টিকে থাকল তামিমরা

পাকিস্তান সুপার লিগে মাহমুদউল্লাহদের কোয়েটাকে হারিয়ে টুর্নামেন্টে টিকে থাকল তামিমদের পেশোয়ার। মঙ্গলবার প্রথম এলিমিনেটরে ১ রানে জিতেছে পেশোয়ার জালমি।

এই জয়ে দ্বিতীয় এলিমিনেটরে পা রাখল পেশোয়ার। সেখানে প্রতিপক্ষ করাচি কিংস। বুধবার হবে ম্যাচটি। সোমবার কোয়ালিফায়ারে ইসলামাবাদ ৮ উইকেটে জিতে ফাইনালের টিকিট কাটে। আর হেরে দ্বিতীয় এলিমিনেটরে যায় করাচি। ২৫ মার্চ ফাইনাল। পেশোয়ার ও করাচির মধ্যকার জয়ী দল ইসলামাবাদের বিপক্ষে শিরোপার মঞ্চে নামবে।

লাহোরে শুরুতে ব্যাট করে নির্ধারিত ওভারের শেষ বলে অলআউট হয়ে যাওয়ার সময় ১৫৭ রান জমা করে পেশোয়ার জালমি। তামিম করেন ২৭ রান, ৫ চারে ২৯ বলে। নেওয়াজের বলে ক্যাচ দিয়েছেন।

বাকিদের মধ্যে হাফিজ ২৫, ওয়াহাব ১৫ ও লিয়াম ডসন করেন ৬২ রান। ৬ চার ও ৪ ছক্কায় ৩৫ বলের ইনিংস সাজান ডসন।

রাহাত আলি ৪ ওভারে মাত্র ১৬ রানে ৪ উইকেট নেন। ২৪ রানে ২ উইকেট নেন থিসারা পেরেরা।

জবাব দিতে নেমে নির্ধারিত ওভারে ৯ উইকেটে ১৫৬ রানে আটকে যায় কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্স। শেষ বলে ৩ রান দরকার ছিল দলটি। ব্যাটে ছিলেন হাসান আলি। ডসনের থ্রোতে দ্বিতীয় রান নেয়ার সময় অন্যপ্রান্তের ব্যাটসম্যান হামজা রানআউটে পড়লে এক রান দূরেই আটকে যায় কোয়েটা।

বাংলাদেশের জার্সিতে দারুণ সময় কাটাতে থাকা মাহমুদউল্লাহর এদিন সুযোগ এসেছি দলকে জেতাতে ভূমিকা রাখার। টাইগার তারকা ১৯ রানের বেশি এগোতে পারেননি। ৩ চারে ২০ বলের ইনিংস। আগে বোলিংয়ে ২ ওভারে ২০ রানে ১ উইকেট নিয়েছেন, বোল্ড করেন হাফিজকে।

তাতে মোহাম্মদ নেওয়াজ ২৫, সরফরাজ ৩৫, পেরেরা ১২, আনোয়ার আলি অপরাজিত ২৮ রান করলেও এক রান দূরেই আটকে যায় কোয়েটা।

জালমির জয়ে ২টি করে উইকেট নিয়ে জয়ে অবদান রেখেছেন হাসান আলি, সামিন গুল, ওয়াহাব রিয়াজ ও উমায়েদ আসিফ।