চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মাস্ক পরলে আমাকে ওয়েস্টার্ন হিরো ‘লোন রেঞ্জার‘ এর মতো দেখায়: ট্রাম্প

করোনাভাইরাসের শুরু থেকেই ফেসমাস্ক নিয়ে নেতিবাচক আচরণ করে আসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি মাস্ক পরার বিরোধী ছিলেন। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শও তোয়াক্কা করেননি তিনি। কিন্তু হঠাৎ তিনি সুর পাল্টালেন।

এক সাক্ষাতকারে তিনি মাস্ক পরা পছন্দ করেন জানিয়ে বলেছেন, মাস্ক পরলে তাকে মুখোশধারী কাল্পনিক ওয়েস্টার্ন ফিল্ম লোন রেঞ্জারের হিরোর মতো দেখায়।

বিজ্ঞাপন

বুধবার ফক্স বিজনেস নেটওয়ার্কের সঙ্গে সাক্ষাতকারে ট্রাম্প বলেন, আমার সবই মাস্কের জন্য।’

বিজ্ঞাপন

এসময় তিনি মাস্ক পরবেন কিনা এমন প্রশ্নে বলেন, আমি যদি এমন কোনো পরিস্থিতিতে যাই তাহলে অবশ্যই পরবো। প্রকাশ্যে মাস্ক পরা নিয়ে আমার কোনো সমস্যা নেই।

এপির প্রতিবেদনে বলা হয়, যদিও এপ্রিলে করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে দেশটির সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (সিডিসি) যখন জনগণকে ফেসমাস্ক পরার পরামর্শ দেয়া শুরু করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট স্বয়ং তার বিরোধিতা করেন। তিনি স্পষ্টই বলেন, ‘আমি মনে করি না যে আমি এটি করবো‘।

বিজ্ঞাপন

এতোদিন পর এসে তিনি মাস্ক পরার বিষয়ে ইতিবাচক মন্তব্য করলেন। তবে দেশজুড়ে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা দরকার আছে বলে এখনো মনে করেন না তিনি।  কারণ দেশে এমন অনেক জায়গা রয়েছে, যেখানে মানুষ খুব দীর্ঘ দূরত্বে থাকেন।

আগামী ৩ জুলাই স্বাধীনতা দিবস উদযাপনে লোকজনকে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হবে না বলেও জানান।

ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, মানুষ যদি মাস্ক পরা উচিত বলে মনে করে, তবে পরবে।

তিনি এখনো মনে করেন, কোনো একদিন করোনাভাইরাস অদৃশ্য হয়ে যাবে। ‘হ্যাঁ, আমি বলেছিলাম। আমি এটা মনে করি। নিশ্চয় কিছু সময়‘।

কিন্তু গতকাল আমেরিকা করোনা শনাক্তে নতুন রেকর্ড করেছে। ২৪ ঘণ্টায় ৫২ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়েছে।

করোনা আক্রান্তের দেশগুলোর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র শীর্ষে অবস্থান করছে। এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে ২৭ লাখ ৮০ হাজার বেশি মানুষ আক্রান্ত ও ১ লাখ ৩০ হাজার ৭৯৮ জন মৃত্যুবরণ করেছে।