চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মালদিনিদের বাপ-ছেলের পর ইব্রা চান নাতির সঙ্গেও খেলতে!

বয়সকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে এখনো দুর্দান্ত প্রতাপে খেলে চলেছেন জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ। বয়স তার কাছে কেবলই একটা সংখ্যা, প্রতিপক্ষরাও বেশ টের পাচ্ছে। ৩৯ বছরেও মৌসুমে ৮ ম্যাচে ১০ গোল, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও রোমেলু লুকাকুর সঙ্গে যৌথভাবে আছেন সিরি আ’র গোলদাতাদের শীর্ষে।

দুই দশকের ক্যারিয়ারে ৭ দেশের শীর্ষ লিগগুলোতে খেলার অভিজ্ঞতা আছে ইব্রার। স্বদেশ সুইডেনের মালমো ক্লাবের হয়ে খেলা শুরু। পরে আয়াক্স, জুভেন্টাস, ইন্টার মিলান, বার্সেলোনা, এসি মিলান, পিএসজি, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, এলএ গ্যালাক্সি হয়ে ফের মাঠ মাতাচ্ছেন এসি মিলানে এসে।

বিজ্ঞাপন

২০০৬ থেকে ২০০৯ পর্যন্ত সুইডিশদের সাবেক ফরোয়ার্ড তিন বছর ছিলেন ইন্টার মিলানে। সেসময়ে বিশ্বের অন্যতম ক্ল্যাসিক প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছিল দুই মিলানের ‘ডার্বি’তে। ডার্বিতেই এসি মিলান কিংবদন্তি পাওলো মালদিনির বিপক্ষে খেলার অভিজ্ঞতা আছে ইব্রার।

বিজ্ঞাপন

একদশক পর এসি মিলানে ফিরে আসার পর সুইডিশ তারকা সতীর্থ হিসেবে পেয়েছেন মালদিনিদের তৃতীয় প্রজন্ম, অর্থাৎ পাওলোপুত্র ড্যানিয়েলকে। যেভাবে চালিয়ে যাচ্ছেন ড্যানিয়েলের পুত্রের সঙ্গেও খেলার ইচ্ছার কথা বিবিসিকে জানিয়েছেন ইব্রা।

‘আমি পাওলো মালদিনির বিপক্ষে খেলেছি। এখন তার ছেলে ড্যানিয়েলের সঙ্গে খেলছি। আশা করি ড্যানিয়েলের ছেলের সঙ্গেও একদিন খেলবো। করতে পারলে তা হবে অলৌকিক কিছু!’

ইব্রার সমসাময়িক যারা ফুটবলার ছিলেন, তারা খেলা ছেড়ে এতদিনে হয় কোচ নয়তো ফুটবল পণ্ডিতের কাজ করছেন। কিন্তু থামাথামি ইচ্ছা নেই ইব্রার।

‘যতদিন চালিয়ে যেতে পারবো, ততদিন পর্যন্ত থামার কোনো ইচ্ছা নেই। আমাকে শুধু শারীরিকভাবে ঠিক থাকতে হবে, বাকিটা এমনি এমনি হয়ে যাবে।’