চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মার্কিনীদের মাস্ক পরতে আদেশ দেবেন না ট্রাম্প

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের মাস্ক পরতে কোনো আদেশ দেবেন না বলে দৃঢ়ভাবে জানিয়ে দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

দেশটির শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউসি বলেছেন, জনগণকে মাস্ক পরাতে রাজ্য ও স্থানীয় নেতাদের যতটা সম্ভব বাধ্য করতে হবে। তারপরই এমন মন্তব্য করেন ট্রাম্প।

বিজ্ঞাপন

ড. ফাউসি বলেন, মাস্ক পরা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের সবাইকে তা ব্যবহার করা উচিত।

বিজ্ঞাপন

মুখ ঢাকার বিষয়টি এখন যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিতে পরিণত হয়েছে। বেশিরভাগ রাজ্য সরকার ঘরের বাইরে বাধ্যতামূলক মাস্ক পরার পক্ষে। এক্ষেত্রে কোনো ব্যক্তিগত পছন্দ চলবে না।

এর আগে নিজেও মাস্ক পরার বিরোধিতা করেছিলেন ট্রাম্প। কিন্তু গত শনিবার তাকে প্রথমবারের মতো জনসম্মুখে মাস্ক পরিহিত অবস্থায় দেখা যায়।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার ফক্স নিউজকে তিনি বলেন, জাতীয়ভাবে মাস্ক পরার আদেশ দেয়ার সাথে তিনি একমত নন, মানুষের একটি ‘নির্দিষ্ট স্বাধীনতা’ থাকা উচিত।

জর্জিয়া রাজ্যে রিপাবলিকান গভর্নর ব্রায়ান কেম্প পরের মাসে বাসিন্দাদের মাস্ক পরার আহ্বান জানিয়েছেন।

ওকলাহোমা সিটির কর্মকর্তারাও রাজ্যব্যাপী মাস্কের প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি বিবেচনা করছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কয়েকটি রাজ্যে করোনাভাইরাসের প্রকোপ চূড়ান্ত। টেক্সাস ও ক্যালিফোর্নিয়ায় কয়েকশ মেডিক্যাল কর্মী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে করোনাভাইরাস আক্রান্ত কর্মকর্তাদের চিকিৎসাসেবা দেওয়ার জন্য।

টেক্সাস ও অ্যারিজোনায় কুলার ট্রাক পাঠানো হয়েছে মরদেহ সংরক্ষণের জন্য। ফ্লোরিডার হাসপাতালগুলোতে কোনো আইসিইউ খালি নেই, তাই আর কোনো রোগী তারা ভর্তি করতে পারবে না।

এখনও করোনাভাইরাসের কেন্দ্রভূমি হয়ে আছে যুক্তরাষ্ট্র। সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে, আর মৃত্যুবরণ করেছে ১ লাখ ৩৯ হাজার মানুষ। সেটাই বিশ্বের একটি দেশের সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর সংখ্যা।