চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মারা গেছেন চলচ্চিত্র অভিনেতা রানা হামিদ

‘গ্যাং লিডার’ খ্যাত চলচ্চিত্র অভিনেতা রানা হামিদ মারা গেছেন। নব্বই দশকে একাধিক ছবিতে কাজ করে পরিচিতি পাওয়া এ অভিনেতা বেশ কিছুদিন ধরে কিডনিজনিত রোগে ভুগছিলেন। শনিবার রাত সোয়া ১১টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

রানা হামিদের মৃত্যুর খবর চ্যানেল আই অনলাইনকে জানিয়েছেন প্রযোজক পরিবেশক সমিতির সহ-সভাপতি কিবরিয়া লিপু। তিনি বলেন, শ্যামলীর একটি হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়েছে। কদিন আগেও করোনা নিয়ে তার সাথে আলাপ হচ্ছিল। তখন জানিয়েছিলেন অসুসস্থতার কথা। দেশের পরিস্থিতি খারাপ থাকায় তার চিকিৎসায় অসুবিধে হচ্ছিল।

বিজ্ঞাপন

শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান জানান, নেত্রকোনা সদরে রানা হামিদের পৈতৃক বাড়ি। তার দাফন হবে সেখানেই। রাতেই মরদেহ সেখানে নেয়া হচ্ছে। রবিবার দাফন সম্পন্ন হবে।

বিজ্ঞাপন

শুধু চলচ্চিত্রে অভিনয় নয়, প্রযোজক ও পরিচালক ছিলেন রানা হামিদ। তিনি বর্তমানে চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের সদস্য ছিলেন। প্রযোজক নেতা কিবরিয়া লিপু বলেন, ৯০ থেকে ২০০০ এই ১০ বছরে রানা হামিদ ১০টির মতো ছবিতে কাজ করেছিলেন। ছবিগুলো ছিল তার নিজের প্রোডাকশনের।

রানা হামিদের প্রথম ছবি ছিল ‘ক্ষমতাবান’, দ্বিতীয় ছবি ‘সন্ত্রাসী রাজা’।

চলচ্চিত্র ছাড়াও তিনি আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। ২০০৯ সালের অক্টোবরে তিনি এফডিসির পরিচালক (কারিগরি ও প্রকৌশলী) হিসেবে নিয়োগ পেয়েছিলেন।