চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পরিচালক হিসেবে মানুষের পছন্দের পাত্র হতে চাই: শিমুল

ছিলেন জনপ্রিয় নির্মাতা কাজল আরেফিন অমির সহকারী পরিচালক। তার কথাতে আসেন অভিনয়। সদ্য শেষ হওয়া ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ সিজন ৩-এ অভিনয় করে দর্শকপ্রিয় হয়ে উঠেন তিনি। নামের আগে লেগে যায় ‘অভিনেতা’ ট্যাগ। মানুষ দেখলেই ভালোবাসা প্রকাশ করে জড়িয়ে ধরেন, আসেন সেলফি তুলতে! যার কথা বলছি তিনি শিমুল শর্মা।

সবার কাছে ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’র শিমুল নামে পরিচিত। তবে অভিনেতা নয় বরং পরিচালক হিসেবে জনপ্রিয়তা পেতে চান শিমুল। মূলত এ কাজটি করতেই এসেছিলেন মিডিয়াতে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

২০১৭ সালে পরিচালক অমির ছয় নাম্বার সহকারী থাকলেও এখন তিনি এক নাম্বার সহকারী পরিচালক। তার ইচ্ছে, আগামীতে পরিচালক হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাওয়া। সেভাবেই প্রস্তুত হচ্ছেন।

চ্যানেল আই অনলাইনের সঙ্গে শিমুল শর্মা বলেন, মানুষ আমাকে ভালোবাসা দিচ্ছে, কিছু ফ্যান ফলোয়ার্স যদি তৈরি হয়ে থাকে, আমি চাই যখন পরিচালক হবো তখন তারা আমাকে সাপোর্ট করুক। ভালোবাসাটা পরিচালক শিমুল শর্মাকে দিক। তাহলে আমি খুশী হবো। তবে ব্যাচেলর পয়েন্টের কয়েকটি এপিসোডের মাধ্যমে মানুষ আমাকে পছন্দ করেছেন শুধুমাত্র অমি ভাইয়ের কারণে। তিনি আমাকে সুযোগ দিয়েছেন বলেই কিছু করতে পেরেছি। তিনি যখন চাইবেন তখন পরিচালক হবো।

বিজ্ঞাপন

‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ শেষ হওয়ায় পুরো ইউনিটকে ভীষণ মিস করছেন শিমুল শর্মা। তার মতে, তিনি শুধু অভিনেতা ছিলেন না। ছিলেন টিমের অন্যতম সদস্য। বলেন, যেহেতু অমি ভাইয়ের সহকারী ছিলাম শুটিংয়ের আগে অনেক কিছু গোছাতে হতো। অন্যান্য শুটিংয়ে অনেক সময় পেইন থাকতো। কিন্তু ব্যাচেলর পয়েন্ট আমাদের কাছে ছিল মজার কাজ। কোনো পেইন নয় বরং আমরা আড্ডা মারতে মারতে কাজ শেষ করতাম। মাসে ছয়দিন শুটিং থাকলে ওই দিনগুলো ছিল আমাদের কাছে মধুর। অপেক্ষা করতাম কবে শুটিং হবে।

শিমুল জানালেন, তিনি নিজেও অনুভব করেন তার কিছু ফ্যান ফলোয়ার্স তৈরি হয়েছে। মানুষ চিনেছেন। তিনি বলেন, কোথাও গিয়ে কিছু খেলে ব্যাচেলর পয়েন্টের শিমুল ভাই বলে জড়িয়ে ধরেন। অনেক সময় খাবারের পর বিল নেয় না। এগুলো আমাকে খুব স্পর্শ করে। তবে আমার নিয়মিত অভিনয়ের ফিল আসে না। কারণ, অভিনয় করা খুব কঠিন কাজ। মন থেকে চাই, যারা আমাকে পছন্দ করেন তারা যখন পরিচালক হবো তখন আমাকে বেশি সাপোর্ট করুক। সেটাই হবে আমার জন্য আশীর্বাদ।

তিনি বলেন, কিছু মানুষ আমাকে ভালোবাসে তবে আমি আগের শিমুলই আছি। খুব সাধারণ মানুষ হয়েই থাকতে চাই। জনপ্রিয়তা বা আলোচিত অভিনেতা হওয়া নিয়ে মোটেও ভাবিনা। তবে হ্যাঁ, পরিচালক হিসেবে মানুষের পছন্দের পাত্র হতে চাই। এই কাজের জন্য আমি মেন্টালি প্রস্তুতি নিচ্ছি। আমার গুরু অমি ভাই যেদিন মনে করবেন শিমুল মুভ করার জন্য প্রস্তুত সেদিন কাজ শুরু করবো। এখনও তার স্কুলিংয়ে আছি।

মোশন রকের ব্যানারে মাসুদুল হাসানের প্রযোজনায় সিজন ১ ও ২ এর মতো সিজন ৩ আলোচনার শীর্ষে ছিল কাজল আরেফিন অমির ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’। নাটকটি সপ্তাহে তিনদিন ধ্রুব টিভির ইউটিউবে প্রচারের পাশাপাশি একটি বেসরকারি টিভিতেও প্রচার হতো। নিয়মিত দর্শকদের আবেগে ভাসিয়ে নাটকটি ১৩ এপ্রিল ৭৯ পর্বে গিয়ে শেষ হয়েছে।

যেখানে অভিনয় করেন মারজুক রাসেল, চাষি আলম, তৌসিফ মাহবুব, শামীম হাসান, মিশু সাব্বির, জিয়াউল হক পলাশ, শরাফ আহমেদ জীবন, সাবিলা নূর, মনিরা মিঠু, ফারিয়া শাহরিন, সানজানা রিয়া, আবদুল্লাহ রানা, পাভেল, মুসাফির বাচ্চু, শিমুল শর্মা, তুর্যসহ অনেকে।

বিজ্ঞাপন