চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘মানি হেইস্ট’ মুক্তির দিনে পুরো অফিস ছুটি!

শুক্রবার (৩ সেপ্টেম্বর) নেটফ্লিক্স-এ মুক্তি পেতে যাচ্ছে বহুল প্রতীক্ষিত ওয়েব সিরিজ ‘মানি হেইস্ট’ এর ৫ নম্বর সিজন। কিন্তু মুক্তি পাওয়ার আগে থেকেই বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয় এই সিরিজের শেষ সিজন নিয়ে সিনেপ্রেমীদের মধ্যে উত্তেজনার পারদ তুঙ্গে!

এবার সেই আঁচই যেন লাগল ভারতের রাজস্থানের জয়পুরের এক কর্পোরেট অফিসেও!

‘ভার্ভলজিক’ নামের ওই আইটি সংস্থার সিইও অভিষেক জৈন জানতেন, ‘মানি হেইস্ট’ এর জ্বরে তার কর্মীরা কাবু হবেনই। আর তাই কর্মীদের উদ্দেশে একটি চিঠি লিখেছেন তিনি।

চিঠির বিষয়বস্তু রাখা হয়েছে “নেটফ্লিক্স অ্যান্ড চিল হলিডে”। চিঠিতে বলা হয়েছে ৩ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাচ্ছে ‘মানি হেইস্ট’ এর সিজন-৫। ওইদিন ই-মেইলের ইনবক্স ছুটির আবেদনে ভরে উঠুক ছুটির আবেদনে, এমনটা আমরা চাই না। দেখতে চাই না ফাঁকা অফিস। জানি, কখনো কখনো কাজে উদ্যম পেতে একটু “চিল মোমেন্ট”-এর প্রয়োজন। তাই এ বিষয়ে আমরা একটি উদ্যোগ নিয়েছি।

চিঠিতে তিনি বলেন, ‘সুতরাং আর দেরি কেন! পপকর্ন খান, সোফায় গা এলিয়ে ‘প্রফেসর’ এবং তার পুরো দলকে চূড়ান্ত বিদায়ের প্রস্তুতি নিন। অর্থাৎ, ভার্ভলজিকের পক্ষ থেকে এ দিনটিতে সব কর্মীকে “মানি হাইস্ট” জ্বরে কাবু হওয়ার সুযোগ দিচ্ছি!’

বিজ্ঞাপন

এতে আরও বলা হয়, যেভাবে আপনারা বাড়ি থেকে কাজ করে কঠিন সময়ে প্রতিষ্ঠানের পাশে দাঁড়িয়েছেন। সংস্থাকে সেই দুঃসময় থেকে বের করে এনেছেন, আপনাদের সেই উৎসাহ এবং উদ্যম সত্যিই প্রশংসনীয়। তাই প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে আপনাদের জন্য বড় চমক। বিশাল চাপের পর একটা বিরতি তো জরুরি, তাই না!

অনলাইনে ভাইরাল এখন এই চিঠি

অনলাইনে ভাইরাল এখন সেই চিঠি। পাশাপাশি কর্মীদের প্রতি সিইওর এই বিবেচনা ব্যাপক প্রশংসা পাচ্ছে।

‘মানি হেইস্ট’-এর চতুর্থ সিজন এসেছিল গত বছরের এপ্রিলে। তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে চতুর্থ সিজনটি। এরপর থেকেই এর পঞ্চম সিজনের অপেক্ষায় আছেন বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে থাকা প্রফেসর ভক্ত দর্শক অনুরাগীরা! ‘মানি হেইস্ট’ গ্যাংটির ভাগ্যে কী আছে, তা নিয়ে জল্পনাকল্পনাও কম হয়নি। বিশেষ করে চতুর্থ সিজনে ক্লিফ হ্যাঙ্গার প্রফেসরের আস্তানাটি পুলিশ চিনিয়ে দেয়ার পর কী হবে তা জানতে উদগ্রীব হয়ে আছে ভক্তরা।

সেই অপেক্ষার অবসান হচ্ছে আজই। যদিও প্রফেসর খ্যাত আলভারো মর্তে একটু আভাস দিয়ে রেখেছেন যে, ‘প্রফেসর’ চরিত্রটি হয়তো আবার তার আগের জীবনের একাকীত্বে ফিরে যাবেন। তবে আগেই কিছু নিশ্চিতভাবে অনুমান করা যাচ্ছে না। পঞ্চম সিজন মুক্তি পেলেই সব প্রশ্নের উত্তর মিলবে।

বিজ্ঞাপন