চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মানবতাবিরোধী অপরাধ: ‘আফ্রিকার পিনোশে’র যাবজ্জীবন

মানবতাবিরোধী অপরাধে চাদের সাবেক স্বৈরশাসক হিসেন হাবরে-কে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আফ্রিকান ইউনিয়নের একটি আদালত। সেনেগালের রাজধানী ডাকারে আফ্রিকান ইউনিয়ন সমর্থিত একটি আদালত মানবতাবিরোধী অপরাধে তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়।

হিসেন হাবরের বিরুদ্ধে ৯০ এর দশকে চাদে ৪০ হাজার লোককে হত্যার নির্দেশ দেওয়ার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এই প্রথমবারের মতো আফ্রিকান ইউনিয়ন সমর্থিত একটি আদালত ওই মহাদেশের একজন সাবেক শাসকের অত্যাচার-নির্যাতনের বিচার করল।

বিজ্ঞাপন

১৯৮২ সাল থেকে ১৯৯০ পর্যন্ত হাবরের সরকার চাদের ক্ষমতায় থাকার সময় এই মানবতাবিরোধী অপরাধগুলো সংঘটিত হয়। বর্বরতার জন্য কুখ্যাত হিসেন হাবরে-কে ‘আফ্রিকান পিনোশে’ বলে আখ্যায়িত করা হয়। ল্যাটিন আমেরিকান দেশ চিলির কুখ্যাত শাসক পিনোশের মতোই হত্যা,ধর্ষণ এবং ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠীকে নিশ্চিহ্ন করার মতো অজস্র অপকর্মের হোতা ছিলেন হিসেন হাবরে।

তবে নিজের বিরুদ্ধে সব অভিযোগই অস্বীকার করে আদালতের আইনী বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন এই গণহত্যাকারী। হাবরের বয়েস এখন ৭৩। তিনি তার চিরাচরিত সাদা আলখাল্লা, সানগ্লাস এবং পাগড়ি পরে আদালতে উপস্থিত হন। রায় ঘোষণার সময় তিনি নির্বিকার মুখে কাঠগড়ায় বসে ছিলেন।

কিন্তু ঐতিহাসিক এই রায়ের পর আদালতের বাইরে আনন্দে একে অন্যকে জড়িয়ে ধরেন সেই সময় নির্যাতিত কয়েক’শ নারী-পুরুষ এবং প্রাণ হারানো মানুষদের স্বজনরা।

বিজ্ঞাপন