চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মাগুরায় করোনা আক্রান্ত ৩ গার্মেন্টসকর্মী সুস্থ

নিয়মিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাগুরায় করোনা রোগীদের মধ্যে ৩ গার্মেন্টসকর্মী সুস্থ হয়েছেন বলে দাবি করেছেন জেলার স্বাস্থ্য বিভাগ।

সোমবার ঢাকা থেকে আসা রিপোর্টে বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ।

বিজ্ঞাপন

তাদের সুস্থতার কারণে আক্রান্তদের তিন গ্রামের লকডাউন প্রত্যাহার করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

সুস্থ হওয়া ৩ গার্মেন্টসকর্মী হচ্ছেন মাগুরা সদরের মৃগি ডাঙ্গার জীবন বিশ্বাস (৩০), শ্রীপুর উপজেলার জোত শ্রীপুরের অনুপ টিকাদার (২৪) ও একই উপজেলার বাখেরা গ্রামের বিপ্লব বিশ্বাস (২২)।

বিজ্ঞাপন

তারা প্রত্যেকে ঢাকার আশুলিয়ার একটি গার্মেন্টেসে কর্মরত ছিলেন। গার্মেন্টস থেকে ছুটিতে বাড়ি আসায় স্বাস্থ্য বিভাগ তার নমুনা পরীক্ষা করালে তাদের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়।

এ বিষয়ে মাগুরা সিভিল সার্জন ডাক্তার প্রদীপ কুমার সাহা জানান, গত এপ্রিল মাসের ২২ থেকে ২৬ তারিখের মধ্যে মাগুরা সদরের মৃগীডাঙ্গা, শ্রীপুর উপজেলার জোত শ্রীপুর ও বাখেরা গ্রামে ৩ করোনা রোগী শনাক্ত হয়।

‘‘তারা প্রত্যেকে গার্মেন্টসকর্মী। শনাক্ত হওয়ার সাথে সাথে ওই ৩ রোগীর গ্রাম লকডাউন করা হয়। পাশাপাশি হোম আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হয়। চিকিৎসার ১৪ দিন পর তাদের নমুনা সংগ্রহ করে চুড়ান্ত রিপোর্টের জন্য ঢাকা আইইডিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। সেখান থেকে আজ সোমবার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।’’

স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, মাগুরায় আজ সোমবার এক গণমাধ্যমকর্মীসহ ২ জন নতুন আক্রান্ত নিয়ে এ পর্যন্ত ১১ জন আক্রান্ত হয়েছে। যার মধ্যে সুস্থ এ ৩ জন ব্যতিত অন্য ৮ করোনা রোগীকে বাড়িতে আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

সিভিল সার্জন প্রদীপ কুমার সাহা আরো জানান, সুস্থ হওয়া ৩ করোনা রোগীকে নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে রেখে কিছু ওষুধ সেবনের পাশপাশি নিয়মিত গরম পানি ও চা পানের পরামর্শ দেয়া হয়েছে। নিয়ম মানায় সুস্থ হয়েছেন তারা। এছাড়া তাদের সংস্পর্শে আসা অন্য ব্যক্তিদের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তাদের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়নি। আক্রান্ত ব্যক্তিসহ তাদের পরিবারের প্রত্যেককে নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষার পাশাপাশি নিবীড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল।