চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মহিউদ্দিন চৌধুরীর কুলখানিতে মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত কমিটি

চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরীর কুলখানিতে পদদলিত হয়ে ১০ জনের মৃত্যুর ঘটনায় ২টি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সোমবার অাওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর কুলখানিতে অংশ নিতে এসে পদদলিত হয়ে ১০ জনের মৃত্যু হয়। এই ঘটনায় আহত হয় প্রায় অর্ধশতাধিক।

সোমবার চট্টগ্রামের আসকার দীঘিতে রিমা কমিউনিটি সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে। সেখানে কুলখানি উপলক্ষে মুসলিম ছাড়া অন্য ধর্মাবলম্বীদের জন্য মেজবানের আয়োজন করা হয়েছিল।

নিহতদের মধ্যে নয়জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন সুবীর দাস, দীপংকর রাহুল দাস, আশিস বড়ুয়া, রীবন দাস, উজ্জ্বল চৌধুরী, প্রদীপ তালুকদার, ঝন্টু দাস, কৃষ্ণপদ দাস ও লিটন দেব।

বিজ্ঞাপন

নিহতদের পরিবার প্রতি ১ লাখ টাকা সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন। আহতদের চিকিৎসা এবং নিহতদের শেষকৃত্যের খরচ দেবে মহিউদ্দিন চৌধুরীর পরিবার।

গত ১৪ই ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৪টার দিকে বন্দর নগরীর মেহেদীবাগের বেসরকারি ম্যাক্স হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী।

মহিউদ্দিন চৌধুরী দীর্ঘদিন ধরে হৃদযন্ত্র ও কিডনির জটিলতায় ভুগছিলেন।

১৯৯৪ সালে প্রথমবারের মতো চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হন এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী। ২০০৫ সালের মেয়র নির্বাচনে তিনি ক্ষমতাসীন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের প্রতিমন্ত্রী মীর নাসিরকে পরাজিত করে তৃতীয়বারের মতো চট্টগ্রামের মেয়র নির্বাচিত হন। পাশাপাশি প্রতিপক্ষের তুলনায় ভোটের ব্যবধানও উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পায়।

বিজ্ঞাপন