চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মরদেহের সঙ্গে খোলা ট্রাকে বাড়ি ফিরলো আহত শ্রমিকেরা

তীব্র সমালোচনার মুখে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ

ভারতের উত্তর প্রদেশে কাজের সন্ধানে ঝড়খণ্ড থেকে একদল শ্রমিক গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হয়৷ ওই দুর্ঘটনায় ২৬ জনের মৃত্যু হয় এবং ৩০ জন আহত হন। আহতদের মধ্যে ১১ জন ঝড়খন্ডের বাকিরা পশ্চিম বাংলার৷

ঘটনা ওড়াইয়া নামক স্থানে, যেটা উত্তর প্রদেশের রাজধানী লখনৌ থেকে ২০০ কিলোমিটার ভেতরে।

বিজ্ঞাপন

সেখান থেকে দুর্ঘটনা কবলিত হয়ে মরদেহ গুলো খোলা ট্রাকে (৩ ট্রাক) পলিথিনে মুড়িয়ে ঝাড়খণ্ড পাঠিয়ে দেয় উত্তর প্রদেশের সরকার। ওই ট্রাকে তুলে দেওয়া হয় আহতদের সামান্য প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে৷ এ অবস্থায় যাত্রা করতে হয়েছে ৭১২ কিলোমিটার পথ।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

কংগ্রেস এ ঘটনায় উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের পদত্যাগ দাবি করেছে।

উত্তর প্রদেশ সরকারের এ কর্মকাণ্ডকে চরম অমানবিকতা হিসেবে দেখছেন ঝাড়খণ্ড সরকার। এরমধ্যে ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন এ বিষয়ে ক্ষোভ জানিয়ে টুইট করেছন৷ যার জেরে দেশ জুড়ে শুরু হয়েছে সমালোচনা।

টুইটে হেমন্ত লিখেছেন: আমাদের শ্রমিকদের সঙ্গে এই অমানবিক আচরণ চাইলেই এড়ানো যেত। আমি উত্তর প্রদেশ সরকার ও বিহার সরকারকে অনুরোধ করবো তারা যেন সঠিক উপায়ে আমাদের শ্রমিকদের ঝাড়খণ্ড সীমান্ত পর্যন্ত পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করে দিন। বোকারো পর্যন্ত, বাকি পথটা আমরা সম্মানের সঙ্গে তাদের পৌঁছে দেবো।