চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মমতাজের কণ্ঠে করোনা প্রতিরোধের ডাক

‘প্রিয় দেশবাসী/ আমি আপনাদের সবার প্রিয় শিল্পী মমতাজ বলছি/ দেশে ফেরত বন্ধু যখন/ চোদ্দ দিন বাইরে না গিয়া/ সবার ভালর কথা ভাইবা একলা রয়/ ঘরে একলা রয়/ মনটা ভইরা যায়/ ও মনটা ভইরা যায়।’

কুদ্দুস বয়াতির করোনা নিয়ে সচেতনতামূলক গানের পর কোকিলকণ্ঠী শিল্পী মমতাজের কণ্ঠে এভাবেই ভেসে আসতে চলেছে করোনাভাইরাস প্রতিরোধের ডাক।

বিজ্ঞাপন

ব্র্যাকের উদ্যোগের সাথে একাত্ম হয়ে লোক সংগীতের সম্রাজ্ঞী যোগ দিয়েছেন সুর ও কথার গাঁথুনিতে গণমানুষকে সচেতন করে তোলার কাজে। গানটি প্রকাশ পাবে মঙ্গলবার (৩১শে মার্চ)।

বিজ্ঞাপন

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং স্বাস্থ্যসম্মতভাবে হাত ধোয়া এবং নিঃশ্বাস-প্রশ্বাস ও হাঁচি-কাশি দেওয়ার নিয়মগুলো সুরে সুরে তুলে ধরা হয়েছে গানটিতে।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে গানটির কথাগুলো বসানো হয়েছে মমতাজের তুমুল শ্রোতাপ্রিয়  ‘বুকটা ফাইট্যা যায়’ গানটির সুরের ওপর। ব্র্যাকের কর্মকর্তারা আশা করছেন গানটি মূল গানের মতোই জনমনে ব্যাপক সাড়া ফেলতে সক্ষম হবে এবং করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে মানুষের মধ্যে সঠিক আচরণগুলো গড়ে তুলতে সহায়ক হবে।

গানটিতে কষ্ঠ দেওয়া প্রসঙ্গে মমতাজ বেগম বলেন, বর্তমানে করোনাভাইরাসকে কেন্দ্র করে যে জাতীয় সংকট সৃষ্টি হয়েছে তা মোকাবেলায় এগিয়ে আসা আমাদের কর্তব্য। সাধারণ মানুষকে সম্ভাব্য সকল উপায়ে সাহায্য করা আমাদের দায়িত্ব। সেই ভাবনা থেকেই গানটি করেছি।

ব্র্যাক ও ব্র্যাক ইন্টারন্যাশনালের কমিউনিকেশনস অ্যান্ড আউটরিচ বিষয়ক পরিচালক মৌটুসী কবীর বলেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধের বার্তাগুলোকে বিশেষ করে ছোট ছোট শহর ও গ্রাম-গঞ্জের মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার প্রচেষ্টায় কুদ্দুস বয়াতি ও মমতাজের মতো প্রখ্যাত শিল্পীদের দিয়ে সচেতনতামূলক গানগুলো করছি। আমাদের এই উদ্যোগে তারা যুক্ত হওয়ায় গুণী এই শিল্পীদের প্রতি গভীরভাবে কৃতজ্ঞতা।