চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনা ঘোষণা করল যুক্তরাষ্ট্র

এই পরিকল্পনা প্রত্যাখ্যান করেছে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ এবং হামাস

বহুল প্রতিক্ষিত মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে যুক্তরাষ্ট্র। বাহরাইনে দুই দিনের কর্মশালায় ওই পরিকল্পনা ঘোষণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপদেষ্টা জ্যারেড কুশনার।

ফিলিস্তিন অঞ্চল ও প্রতিবেশি আরব দেশগুলোর অর্থনৈতিক উন্নয়নে, পরবর্তী দশ বছরে পাঁচ হাজার কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগের কথা বলা হয়েছে প্রস্তাবে। পরিকল্পনায় ১৭৯টি আঞ্চলিক প্রকল্পের আওতায় শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও কৃষিখাত, রাস্তা উন্নয়ন, সীমান্ত নিরাপত্তা, শক্তি উৎপাদন ও পর্যটনসহ নানা খাতে বিপুল বিনিয়োগের কথা বলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

তবে মূলত ফিলিস্তিন এবং ইসরায়েলের শান্তি আলোচনা হলেও এদের মধ্যকার সংঘাতের বিষয় নিয়েই কিছু বলেননি কুশনার।

‘শতাব্দীর সেরা চুক্তি’ নাম দেয়া এই পরিকল্পনার রাজনৈতিক অংশ পরে প্রকাশ করা হবে জানিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন।

বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্রের এই মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনা প্রত্যাখ্যান করেছে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ এবং হামাস। এছাড়াও বিভিন্ন মহল থেকে এ নিয়ে তীব্র সমালোচনা হচ্ছে।

পরিকল্পনাটি প্রথম দফায় যখন আঞ্চলিক কর্মকর্তাদের সামনে কুশনার উপস্থাপন করেন, তখন সম্মেলন কক্ষে ইসরায়েল বা ফিলিস্তিনের কেউই উপস্থিত ছিলেন না। অথচ আলোচনার অন্যতম মূল বিষয় এই দু’টি পক্ষই।মধ্যপ্রাচ্য শান্তি পরিকল্পনা-যুক্তরাষ্ট্র

গার্ডিয়ান জানায়, পরিকল্পনাটিতে বহু বছরের কূটনৈতিক ব্যবস্থায় এমন পরিবর্তন আনা হয়েছে যা পরিকল্পনার একেবারে আদি অর্থনৈতিক সমর্থকরাও পুরোপুরি মেনে নিতে পারছেন না।

আরব বিশ্লেষকদের মতে, প্রস্তাবটিতে কোনো ধরনের রাজনৈতিক মাত্রা যোগের চিহ্নও নেই। তারা মনে করছেন, যুক্তরাষ্ট্র নতুন এই পরিকল্পনার মধ্য দিয়ে এতদিন ধরে পরিকল্পিত ‘ভূমির বিনিময়ে শান্তি’ ফর্মুলাকে নতুন ‘অর্থের বিনিময়ে শান্তি’ ফর্মুলা দিয়ে প্রতিস্থাপিত করতে চাইছে। আর এর মধ্য দিয়ে ফিলিস্তিনিদের মতামত ও আন্দোলনকে অর্থের বিনিময়ে কিনে নেয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।