চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘মতি ভাইয়ের’ সেঞ্চুরিতে উচ্ছ্বসিত মাশরাফী

শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের শততম ওয়ানডে ম্যাচ মাঠে গড়িয়েছে বুধবার। নেই বাংলাদেশ, মাইলফলকের দিনে খেলছে শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ে। তাই বলে কী মাঠে আসা যাবে না! ইনডোরে অনুশীলন সেরে ম্যাচ দেখতে তাই হোম অব ক্রিকেটে চলে এলেন মাশরাফীর বিন মোর্ত্তজাও। টাইগার অধিনায়ক সোজা চলে গেলেন বাউন্ডারি লাইনের কাছে। বসলেন ছাতার তলে। সাক্ষী হলেন ঐতিহাসিক মুহূর্তের।

মাশরাফী পরে ফটো সাংবাদিকদের জন্য বরাদ্দ স্থানে বসে দেখলেন খেলা। মাঠকর্মী আব্দুল মতিনকে পাশে বসিয়ে কিছুক্ষণ চোখ রাখলেন ম্যাচে। মাঠকর্মী হিসেবে তারও এটি একশত ম্যাচ। বহু স্মৃতি-বিস্মৃতির সাক্ষী তিনিও। প্রিয় মাঠ এবং প্রিয় মানুষটির বিশেষ দিনের স্মৃতি পরে সেলফিবন্দী করলেন ম্যাশ।

বিজ্ঞাপন

পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সেই সেলফি পোস্ট করেছেন মাশরাফী। শিরোনামে লিখেছেন, ‘তামিম, সাকিব আরও অনেকের ১০০ পেরিয়ে আজ মতি ভাইয়ের ১০০ নটআউট যেন বেশি আনন্দের। অভিনন্দন মতি ভাই, ২০০এর অপেক্ষায় আছে শেরে বাংলা…।’

২০০৬ সালের ৮ ডিসেম্বর বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক যাত্রা শুরু করেছিল মিরপুরের এই স্টেডিয়ামটি। জয় দিয়ে শুরু করা ভেন্যুটি প্রিয় হয়ে উঠতে সময় লাগেনি। টাইগারদের অনেক বড় বড় জয়ের সাক্ষী এ দেশের ক্রিকেটের মূল ভেন্যুটি।

মাইলফলকের একশতম ম্যাচ স্মরণীয় করে রাখতে সাদামাটা উদযাপন করেছে বিসিবি। শুভেচ্ছা জানানো হয় এ ম্যাচের রেফারি ডেভিড বুনকে। আইসিসি’র ম্যাচ রেফারি হিসেবে এটি তারও শততম ওয়ানডে ম্যাচ। শততম ম্যাচে দায়িত্ব পালন করা সকল মাঠকমীদের দেয়া হয় জ্যাকেট। পেছনে লেখা শের-ই-বাংলার ‘১০০’। অভিনন্দন জানানো হয় মাঠকর্মী মতিনকেও।