চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

মঈনকে ফেরত পাঠিয়ে ক্ষমা চাইলেন রুট

জৈব সুরক্ষা বলয়ে টানা খেলার একঘেয়েমি আর চোট থেকে রক্ষার জন্য সিনিয়র খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিয়ে খেলাচ্ছে ইংল্যান্ড। যে কারণে চেন্নাইয়ে প্রথম টেস্টে দারুণ খেলে দ্বিতীয় ম্যাচে ছিলেন না অ্যান্ডারসন। তৃতীয় টেস্টে বিশ্রামে থাকবেন দ্বিতীয়টিতে ইংলিশদের সেরা মঈন আলিও। ১০ দিনের ছুটিতে দেশে ফেরত যাবেন তিনি। ফর্মে থাকা অলরাউন্ডারকে এভাবে বিশ্রামে পাঠিয়ে ক্ষমা চেয়েছেন অধিনায়ক জো রুট।

২০১৯ অ্যাশেজের পর দলে ফিরে চেন্নাইয়ের দ্বিতীয় টেস্টে ৮ উইকেট নিয়েছেন মঈন, চতুর্থ ইনিংসে টি-টুয়েন্টি স্টাইলে ১৮ বলে করেছেন ৪৩। এমন পারফরম্যান্সের পরও তাকে ১০ দিনের ছুটিতে দেশে পাঠিয়ে চাপে আছেন রুট। ওই ম্যাচে ৩১৭ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছে তার দল।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

ইংলিশ পত্রিকা মিররের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টিম হোটেলে মঈনকে ফেরত পাঠানোর বিষয়টি জানিয়ে তার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন রুট। সঙ্গে পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন বিষয়টি আসলে তার হাতে নেই, সিদ্ধান্তটি আগেই নেয়া ছিল।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার ম্যাচ শেষে একই কথা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন রুট, ‘মঈনকে দেশে পাঠানোর ব্যাপার আগেই ঠিক করা ছিল। এটা ঠিক, বিষয়টি তার জন্য কঠিনই ছিল। মৌসুম শুরুর আগেই আমরা বলে এসেছি কেউ যদি জৈব নিরাপত্তা ছেড়ে বাড়ি ফিরতে চায় তাহলে তার জন্য আলাদা ব্যবস্থা থাকবে। আমরা এখন যে অবস্থায় আছি, তার জন্য বিষয়টি খুবই উপকারী।’

‘আমরা চাই খেলোয়াড়দের যতটা সম্ভব মাঠে রাখতে, তারা এখানে স্বস্তিতে আছে কিনা সেটাও মাথায় রাখতে হবে।’

মঈনের মতো জস বাটলারকেও প্রথম টেস্টের পর বিশ্রাম দিয়েছে ইংল্যান্ড। সিরিজের বাকি টেস্টগুলোতে আর খেলবেন না তিনি। দলের সঙ্গে যোগ দেবেন সাদা বলের সিরিজের আগে।

শ্রীলঙ্কা সিরিজে যেমন বিশ্রামে ছিলেন বেন স্টোকস ও জফরা আর্চার। প্রথম দুই টেস্টে জনি বেয়ারস্টোর নাম না দেখে সাবেকরা খেপেছিলেন। আহমেদাবাদে পরের দুই টেস্টের জন্য দলে ফিরেছেন এ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান।

বিজ্ঞাপন