চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভ্যাকসিন পাবে সাড়ে ৫ কোটি মানুষ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রথম ধাপে দেশের সাড়ে ৫ কোটি মানুষ করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন পাবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও জানান, ‘আমাদের সাড়ে ১৬ কোটি মানুষের মধ্যে ৫০ শতাংশের বয়স ২৫ বছরের নিচে। এর বাইরে ১৮ বছরের নিচে যে যারা আছে, তারা ভ্যাকসিন নেবে না। তাই এই বিরাট সংখ্যখ মানুষের এখনই ভ্যাকসিন নেওয়ার প্রয়োজন হবে না।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘‘পৃথিবীর কোথাও এই বয়সী মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে না। তাদের ট্রায়ালও হয়নি। এরমধ্যে গর্ভবতী মায়েরাও আছেন। যাদের এর মুহূর্তে করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া যাবে না। এই হিসাবে পাঁচ কোটি লোকের এই মুহূর্তে এই ভ্যাকসিন নেওয়ার প্রয়োজন হবে না।’’

বিজ্ঞাপন

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমরা যে ভ্যাকসিন দিচ্ছি, তার সংখ্যাও সাড়ে পাঁচ কোটি। তাই ভ্যাকসিন পাওয়ার সংখ্যার সাথে না পাওয়ার সংখ্যার খুব একটা গ্যাপ থাকছে না। যেটা থাকবে তা পর্যায়ক্রমে আমরা পূরণ করে দিবো।’

সেই ভ্যাকসিন আসতে আরও ছয় মাস সময় লাগবে জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, ‘এর বাইরে কোভ্যাক্স-এর  ভ্যাকসিন বাংলাদেশে আসতেও বছরখানেক সময়ও লাগতে পারে।’

কোভিডের নতুন সংক্রমণ নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা এরই মধ্যে এয়ারপোর্টে স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা করেছি, সেখানে প্রবেশে অনেক বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এছাড়াও যুক্তরাজ্য থেকে কেউ আসলে সাতদিনের কোয়ারেন্টাইনে রাখার ব্যবস্থা করেছি।’