চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘ভ্যাকসিন জাতীয়তাবাদ’ বন্ধে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আহ্বান

করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে জাতীয়তাবাদী আচরণ বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

দেশগুলোকে নিজেদের স্বার্থ থেকে বেরিয়ে এসে ভাইরাস প্রতিরোধে পুরো বিশ্ব নিয়ে চিন্তা করার অনুরোধ জানিয়েছে সংস্থাটি।

বিজ্ঞাপন

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস অ্যাডানোম গেব্রিয়েসিস বলেন, ভ্যাকসিন নিয়ে জাতীয়তাবাদী আচরণ করা হলে মহামারী মোকাবিলার পথে বাধা তৈরি করবে। কোনো ভ্যাকসিন আবিষ্কৃত হলে তা কুক্ষিগত না রেখে সকলের জন্য ‍উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে সবার জন্য ভালো।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন,  বিশ্ব যদি দ্রুত এ ভাইরাস থেকে মুক্ত হতে চায়, তবে একত্রিতভাবে কাজ করতে হবে। কারণ এটি বিশ্বায়নের দুনিয়া। এখানকার অর্থনীতি একে অপরের উপর নির্ভরশীল। বিশ্বের একাংশ কিংবা গুটিকয়েক দেশ একা একা নিজেদেরকে ভাইরাস থেকে মুক্ত ভাবতে পারবে না।

এক সংবাদ সম্মেলনে টেড্রোস অ্যাডানোম বলেন, মহামারী থেকে বিশ্বের প্রতিটি দেশ নিরাপদ না হওয়া পযন্ত কেউই নিরাপদ নয়। তাই প্রত্যেকটি দেশকে ভ্যাকসিন জাতীয়তাবাদী আচরণ থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য বলছে, বিশ্বের ২ কোটি ২১ লাখ ৩ হাজার ২৪৪ জন মানুষ করোনা মহামারীতে আক্রান্ত এবং মৃত্যু হয়েছে ৭ লাখ ৭৮ হাজার ৩৭৩ জন মানুষের।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন ওষুধ প্রতিষ্ঠানের দ্বারা ৪টি ভ্যাকসিন হিউমেন ট্রায়ালে আছে বলে জানান বিশ্বা স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান।