চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভূমধ্যসাগরে ভাসমান অবস্থায় ২৬৪ বাংলাদেশি উদ্ধার

ভূমধ্যসাগর থেকে ভাসমান অবস্থায় ২৬৪ জন বাংলাদেশি নাগরিকসহ ২৬৭ জনকে উদ্ধার করেছে তিউনিশিয়ার কোস্ট গার্ড। লিবিয়া থেকে ভূমধ্যসাগর হয়ে অবৈধপথে ইউরোপ যাওয়ার সময় তাদের উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা-আইওএম।

উদ্ধার হওয়া ব্যক্তিদের পরে তিউনিসিয়ার দ্বীপ জেরবারের একটি হোটেলে রেড ক্রিসেন্টের অধীনে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

প্রতি বছরই লিবিয়া ও তিউনিশিয়া থেকে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপ যাত্রায় নৌকা ডুবে প্রাণ হারান শত শত অভিবাসনপ্রত্যাশী। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে আটকও হন অনেকে। এরপরও বিপজ্জনক এ পথ পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশিসহ অভিবাসনপ্রত্যাশীদের ইউরোপ পাড়ি জমানোর প্রবণতা থামছে না।

বিজ্ঞাপন

সবশেষ বৃহস্পতিবার লিবিয়া থেকে ইউরোপে যাওয়ার সময় ভূমধ্যসাগরে নৌকা ভেঙে যাওয়ায় উপকূলে আটকা পড়েন ২৬৭ অভিবাসনপ্রত্যাশী। এদের মধ্যে ২৬৪ জনই বাংলাদেশের নাগরিক। উদ্ধার হওয়া অন্য তিনজন মিশরের বলে জানিয়েছে আইওএম। উদ্ধারদের আইওএম এবং রেড ক্রিসেন্টের কাছে হস্তান্তরের পর, তিউনিশিয়ার একটি হোটেলে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

আইওএমের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত জানুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত লিবিয়া হয়ে ইউরোপে যাওয়ার সময় এক হাজারের বেশি অভিবাসন প্রত্যাশীকে ভূমধ্যসাগর থেকে উদ্ধার করা হয়। যা গত বছরের চেয়ে ৭০ শতাংশ বেশি।

২০১৫ সালের পর থেকে এ পর্যন্ত আইওএমের সহায়তায় ভূমধ্যসাগর থেকে উদ্ধার হওয়া ২ হাজার ৯শ’ বাংলাদেশি লিবিয়া থেকে দেশে ফিরেছেন। জাতিসংঘের তথ্য মতে, অবৈধভাবে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিতে গিয়ে চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ মে পর্যন্ত কমপক্ষে ৭৬০ জন অভিবাসী মারা গেছেন।