চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভিন্ন জাতে বিয়ে, অন্তঃসত্ত্বা মেয়েকে পুড়িয়ে হত্যা

ভিন্ন জাতের ছেলেকে বিয়ে করায় নিজের দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা মেয়েকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে এক পাষণ্ড পিতা। তার বাড়ি ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের পুণে জেলায়।

এক সপ্তাহ আগে রুকমিনি রমা ভারতীয়া (১৯) এবং তার স্বামী মাংগেস চন্দ্রকান্ত রানাসিংকে (২৩) তার বাবা ও স্বজনরা মিলে শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়।

শরীরের ৭০ শতাংশ পুড়ে যাওয়া ভারতীয়া রোববার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পুণের সাসোন হাসপাতালে মারা যান। তার স্বামীরও শরীরের ৪০ শতাংশই আগুনে পুড়ে গেছে।

এ ঘটনায় সুরেন্দ্রকুমার এবং গানসিয়াম নামে দু’জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

স্থানীয় পুলিশ জানায়, তাদের বিয়ে মেনে নিতে পারেনি পরিবারের লোকজন। সেই ক্ষোভ থেকেই এ ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ কর্মকর্তা বিজয় কুমার বলেন, রুকমিনি রমা ভিন্ন জাতের তরুণ মাংগেস চন্দ্রকান্ত রানাসিংকে বিয়ে করেছিলেন। তাদের এ বিয়ে মেনে নিতে পারেনি পরিবার। ফলে এমন ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

গত বছরের নভেম্বরে দুই পরিবারের অসম্মতিতে বিয়ে করেন রানাসিং এবং রুকমিনি। গত ২৮ এপ্রিল নিগোজ গ্রামে বাবা-মায়ের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন রুকমিনি।

এরপর গত ১ মে স্ত্রীকে শ্বশুরবাড়িতে নিতে আসেন রানাসিং। সে সময় রুকমিনির বাবা এবং চাচারা মিলে তাদের দু’জনকে একটি রুমে আটকে রাখে। এরপর ওই রুমে আগুন ধরিয়ে দেয়।

প্রতিবেশীরা চিৎকার শুনে ওই দম্পতিকে উদ্ধার করে এবং পুলিশে খবর দেয়। তবে এই ঘটনার পেছনে দায়ী ব্যক্তিরা পুলিশ আসার আগেই পালিয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন