চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভাড়াটে সেজে ডাকাতি, খুন

রাজধানীর যাত্রাবাড়িতে ভাড়াটে পরিচয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সাবেক এক কর্মকর্তার বাসায় ঢুকে লুটপাট চালিয়েছে ডাকাতরা। সেসময় শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয় গৃহকর্তার মেয়ে নিগারকে।

বিজ্ঞাপন

যাত্রাবাড়ির বিবির বাগিচা রজনীগন্ধা রোডের চারতলা বাড়ির দোতলার যে ফ্ল্যাটে ডাকাতি হয়েছে সেখানে এক মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে থাকেন ওই বাড়ির মালিক, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুজ্জামান।

ভুয়া পরিচয়ে তার কাছ থেকে নিচতলার একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নিলেও তিন সপ্তাহ ধরে কোনো মালামাল আনেনি ভাড়াটেরা। বিদ্যুৎ লাইনে সমস্যার কথা বলে কথিত ভাড়াটেদের সঙ্গে কামরুজ্জামানের বাসায় ঢোকে ডাকাতরা।

বাসায় ঢুকেই ডাকাতরা সাবেক কর্মকতার স্ত্রীকে বেঁধে ফেলে। ওইসময় ফ্রিজের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা নিগার চিৎকার দিলে তার ওপর হামলা চালায় ডাকাতদল।

নিহত নিগারের ছোট বোন জানান, ডাকাতরা নিগারকে হত্যার পর পাশের ঘরে তোষকে পেঁচিয়ে রেখে যায়। তার পুরো মুখেই টেপ লাগানো ছিলো। গলায় টাই দিয়ে ফাঁস দিয়ে শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যা করা হয় তাকে।

নিগারকে পরে তার বেডরুমে হাত বাঁধা ও কাঁথা দিয়ে জড়ানো মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ডাকাতরা ওই ফ্ল্যাট বাড়ি থেকে স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকাসহ প্রায় ৩০ লাখ টাকার সম্পদ লুট করে নিয়ে যায়। পুলিশ জানায়, ভাড়া দেওয়ার ক্ষেত্রে বাড়ির মালিক কোন তথ্যই রাখেননি।

শেয়ার করুন: