চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভারতে বাড়ছে ওমিক্রন, ‘আরআরআর’ মুক্তি স্থগিত

ভারতে বাড়ছে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের প্রভাব। যে কারণে একের পর এক বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে বিভিন্ন রাজ্যের প্রেক্ষাগৃহগুলো। সব বিবেচনায় শেষ সময়ে এসে বহুল প্রতীক্ষিত সিনেমা ‘আরআরআর’ মুক্তি স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিলো সংশ্লিষ্টরা।

আসছে ৭ জানুয়ারি মুক্তি চূড়ান্ত ছিলো এসএস রাজামৌলি পরিচালিত ‘আরআরআর’ এর। পরিচালনা পর্ষদের সিদ্ধান্ত ছিলো, করোনার প্রভাবের মধ্যেই সিনেমাটি বড় পর্দায় মুক্তি দিবেন। অফিশিয়াল এক বিবৃতিতে পরিচালক সিনেমাটি নির্ধারিত দিনেই প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দেওয়ার কথা জানিয়েছিলেন। কিন্তু ওমিক্রনের প্রভাব বাড়তে থাকায় সেই কথায় অনড় থাকতে পারেননি নির্মাতা।

Reneta June

শনিবার সন্ধ্যায় ‘আরআরআর’ সিনেমার অফিশিয়াল ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম ও টুইটার থেকে সিনেমাটির মুক্তি স্থগিতের কথা জানানো হয়। এসময় ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে সিনেমা হল বন্ধের কথা উল্লেখ করে ভারতীয় সিনেপ্রেমী দর্শকদের ধৈর্য্য ধরতে বলা হয়। তবে ‘আরআরআর’ মুক্তির নতুন তারিখ ঘোষণা করেনি কর্তৃপক্ষ। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে সুবিধাজনক সময়ে সিনেমাটি মুক্তির নতুন তারিখ ঘোষণা করা হবে বলে জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

‘আরআরআর’ সিনেমায় মূল চরিত্রে অভিনয় করছেন দক্ষিণ ভারতীয় সুপারস্টার রাম চরণ ও জুনিয়র এনটিআর। তাদের সঙ্গে থাকছেন অজয় দেবগণ, আলিয়া ভাটসহ আরও অনেক তারকা।

জানা গেছে, ‘আরআরআর’ সিনেমায় দুই তেলেগু মু্ক্তিযোদ্ধা কমারাস ভীম ও আলুরি সীতারাম রাজুর জীবনকাহিনী তুলে ধরা হচ্ছে। এর আগে বেশ কয়েকবার সিনেমাটির মুক্তি ঘোষণা করা হয়েছিল। কিন্তু করোনার কারণে একাধিকবার এর মুক্তি পেছায়।

মুক্তির আগে নাকি ‘আরআরআর’ ৮০০ কোটি রুপি আয় করেছে। এরমধ্যে সিনেমা স্বত্ব বিক্রিসহ গানের আয়ও রয়েছে। সিনেমাটির মোট বাজেট ৪০০ কোটি রুপি বলে শোনা যায়। উত্তর ভারতীয় স্বত্ব থেকে এটি পেয়েছে ১৩৫ কোটি। হিন্দি ছাড়া সিনেমাটি তামিল, তেলেগু, মালয়ালম ও কন্নড় ভাষায় মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।