চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভারতের ত্রিপুরা সীমান্তে ৩১ রোহিঙ্গা ‘আটক’

ভারতের ত্রিপুরায় আটক ৩১ রোহিঙ্গাকে পুলিশের হাতে হস্তান্তর করেছে দেশটির সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ।

আটক করা ব্যক্তিরা চারদিন ধরে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে অবস্থান করছিল। রোহিঙ্গাদের দাবি, তাদেরকে জম্মু-কাশ্মীর থেকে জোর করে তাড়িয়ে দেয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

শুক্কুর নামে এক রোহিঙ্গা জানায়, তারা বাংলাদশে ঢোকার চেষ্টা করেছিল। পরে বিজিবি তাদের ফেরত পাঠায়। প্রায় ৪৮ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে তারা সীমান্তে আটকা পড়ে ছিল।

তিনি আরো জানান, জম্মু-কাশ্মীরের স্থানীয় মানুষ তাদের দ্রুত এলাকা খালি করে দেয়ার হুমকি দেয়। পরে তারা ট্রেনে চেপে ত্রিপুরা আসে। বাংলাদেশে তাদের আত্মীয়-স্বজন রয়েছে বলে দাবি তার।

বিজ্ঞাপন

আরেক রোহিঙ্গা শাজাহান জানায়, জম্মুতে তারা প্রায় ৬ বছর ধরে বাস করে আসছিল। মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের মুখে তারা রাখাইন রাজ্য থেকে বিতাড়িত হয়। এরপর কলকাতা হয়ে জম্মু পৌঁছে।

সেখানে তাদের মতো ২৫০০ বেশি রোহিঙ্গা পরিবার আছে বলে দাবি তার। এর মাঝে প্রায় ১৫০০ পরিবার পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে। তারা সেখানে নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কাজ করছিল।

আটকে পড়া এসব রোহিঙ্গা বেশ কিছুদিন ধরে মানবেতর জীবন যাপন করছে। তাদের প্রয়োজনীয় খাদ্য কিংবা ওষুধ কোনটিই নেই। তারা খুব দ্রুত স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যেতে চান।

তাদের গ্রেপ্তারের বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করেছে ত্রিপুরা পুলিশ। বেশ কিছু দিন থেকে ভারত থেকে বাংলাদেশে নতুন করে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ সবার চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।