চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভারতের জলপাইগুড়িতে ট্রেন দুর্ঘটনায় বহু হতাহত

ভারতের জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়িতে ট্রেন দুর্ঘটনায় অন্তত ৫ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত অবস্থায় ৪০ জনের বেশি মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৬ জনকে আশপাশের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ৮ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এছাড়াও দুর্ঘটনাকবলিত ট্রেনে আটকা পড়েছেন অনেক যাত্রী।

হিন্দুস্তান টাইমস সহ ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টায় পাটনা থেকে গুয়াহাটিগামী বিকানের-গুয়াহাটি এক্সপ্রেস ময়নাগুড়ির দোমোহনি এলাকায় পৌঁছলে বেশ কয়েকটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে যায়। দুর্ঘটনায় ট্রেনটির ৪ থকে ৫টি বগি দুমড়েমুচড়ে গেছে। সেসময় একটি বগির উপর আরেকটি বগি উঠে যায় এবং পাশের জলাশয়েও একটি বগি পড়ে গেছে।

বিজ্ঞাপন

দুর্ঘটনার সময় ট্রেনটির গতিবেগ ঘণ্টায় ৪০ কিলোমিটার ছিল বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। ট্রেনটি ছাড়ার সময় প্রায় ৭শ’ যাত্রী ছিলেন। রেল দুর্ঘটনার উচ্চপর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। মৃতদের পরিবারকে ৫ লাখ করে আর্থিক সহায়তার ঘোষণা দিয়েছেন রেলমন্ত্রী।

এ দুর্ঘটনায় উদ্ধারকাজের সার্বিক খোঁজখবর নিচ্ছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এক টুইটে তিনি লিখেছেন: ‘কথা বলেছি রেলমন্ত্রী শ্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবের সঙ্গে। পশ্চিমবঙ্গে ট্রেন দুর্ঘটনার খোঁজ নিয়েছি। শোকাহত পরিবারদের পাশে রয়েছি। আহতরা দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুন, এই কামনা করি।’

এছাড়া রেল দুর্ঘটনা নিয়ে টুইট করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। টুইটে তিনি বলেন: ‘ময়নাগুড়িতে বিকানের-গুয়াহাটি এক্সপ্রেসের মর্মান্তিক দুর্ঘটনার কথা শুনে গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। রাজ্য সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্তা, উত্তরবঙ্গের ডিএম/এসপি/আইজি উদ্ধার ও ত্রাণকার্যের তদারকি করছেন। আহতদের যত তাড়াতাড়ি সম্ভব চিকিৎসা সেবা দেওয়া হবে।’

হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, ময়নাগুড়ির দুর্ঘটনা নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দুর্ঘটনার নানা দিক সম্পর্কে তিনি মুখ্যমন্ত্রীর কাছে খোঁজখবর নেন। মুখ্যমন্ত্রীও তাকে রেল দুর্ঘটনার ব্যাপারে জানান।

বিজ্ঞাপন