চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভারতের কাছে শিরোপার স্বপ্নভঙ্গ টাইগার যুবাদের

সম্ভাবনা জাগিয়েও হল না। শিরোপার খুব কাছে থেকে ফিরতে হল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দলকে। ইংল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ভারতের অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে শিরোপার মঞ্চে ৬ উইকেটে হেরে গেছে টাইগার যুবারা।

রোববার হোভে শুরুতে ব্যাট করে মাহমুদুল হাসান জয়ের দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ওভারের শেষ বলে অলআউট হওয়ার পথে ২৬১ রানের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহই গড়েছিল বাংলাদেশের যুবারা। ভারতের যুবারা সেটি টপকে গেছে ৮ বল আর ৬ উইকেট হাতে রেখেই।

বিজ্ঞাপন

সাসেক্স কাউন্টির মাঠে এদিন ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের সর্বোচ্চ রান তুলেছিল বাংলাদেশ। টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন অধিনায়ক আকবর আলী। সর্বোচ্চ ১০৯ রান করেন মাহমুদুল। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬০ এসেছে ওপেনার পারভেজ হোসেন ইমনের ব্যাটে।

ব্যাটে নেমে তানজিদ হাসান ও পারভেজ হোসেন উদ্বোধনীতেই ৫৮ রান তুলে ফেলেন। ২৬ করে তানজিদ ফিরলে ভাঙে জুটি।

পরে দ্বিতীয় উইকেটে মাহমুদুল ও পারভেজ ৬৫ রানের আরেকটি কার্যকরী জুটি গড়েন। পারভেজ ৭ চার ও ৩ ছয়ে ৬৪ বলে ৬০ করে সাজঘরে হাঁটা দেন।

বিজ্ঞাপন

মাহমুদুল ইনিংস টেনেছেন একেবারে শেষ পর্যন্ত। ইনিংসের শেষ বলে রানআউটে ফেরার সময় ডানহাতি ব্যাটসম্যানের নামের পাশে ১০৯ রান। ৯ চার ও এক ছক্কায় ১৩৪ বলের ইনিংস।

বাকিদের মধ্যে বলার মতো ৩২ এসেছে শামিম হোসেনের ব্যাটে।

জবাব দিতে নেমে উদ্বোধনীতে শতরানের জুটি গড়েন জেইশওয়াল ও সাক্সেনা। সাক্সেনা ৫৫ করে রাকিবুলকে রিটার্ন ক্যাচ দিলে ভাঙে ১০৪ রানের জুটি। আকবরের ক্যাচ বানিয়ে রাকিবুলই পরে ফেরান আরেক ওপেনার জেইশওয়ালকে (৫০)।

তিনে নামা অধিনায়ক প্রিয়াম গার্গ ৭৩ করে পথের কাঁটা হয়ে থাকেন। জুরেলের সঙ্গে ১০৯ রানের জুটি গড়ে আসলে ম্যাচটাই বের করে নেন ভারতের যুব অধিনায়ক।

জুরেল ম্যাচ শেষ করেই মাঠ ছেড়েছেন। ৫৯ রানের অপরাজিত ইনিংস তার।

ইংলিশ কন্ডিশনে দারুণ খেলে কেবল শিরোপাটাই জেতা হল না বাংলাদেশের যুবাদের। ৮ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে সবার আগে ফাইনালে উঠেছিলেন আকবররা। গ্রুপপর্বে শীর্ষে ছিলেন। সমান ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে ছিল ভারত। স্বাগতিক ইংল্যান্ডের তো বেহাল দশা, ৫ পয়েন্ট। গ্রুপপর্বে চারবারের দেখায় দুটি ম্যাচে ফল আসতে দেয়নি বৃষ্টি, আর একটি করে জয় ছিল বাংলাদেশ ও ভারতের। শিরোপার মঞ্চে আসল কাজটা করে ভারতের যুবারাই শেষে এগিয়ে থাকল।

Bellow Post-Green View