চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভারতের ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’ বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছেছে

ভারত থেকে আমদানি করা তরল মেডিকেল অক্সিজেনের দ্বিতীয় চালানবাহী ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’ ট্রেন সিরাজগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেলওয়ে স্টেশনে এসে পৌঁছেছে।

এবারো ১০টি কনটেইনারে আনা হয়েছে ২০০ টন তরল মেডিকেল অক্সিজেন (এলএমও)। বুধবার বেলা সোয়া দশটার দিকে অক্সিজেন এক্সপ্রেস ট্রেনটি বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেলওয়ে স্টেশনে এসে পৌছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেলওয়ে স্টেশনের স্টেশন মাষ্টার ইসমাইল হোসেন জানান, দ্বিতীয় দফায় করোনা মোকাবেলায় ভারত থেকে আমদানি করা আরো ২০০ টন তরল অক্সিজেন বুধবার বেলা সোয়া ১০টার দিকে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেলওয়ে স্টেশনে পৌছেছে। এর পর শুরু হয় খালাশ কার্যক্রম।

এসময় আমদানী কারক প্রতিষ্ঠান লিন্ডে বাংলাদেশের কর্মকর্তা, রেলওয়ে পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

করোনা আক্রান্ত মুমূর্ষ রোগীদের সেবার জন্য জরুরী ভাবে এ অক্সিজেন লিনডে বাংলাদেশ ভারত থেকে সরকারী সহযোগীতায় আমদানী করেছে। যা এখান থেকে খালাশের পর দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে সরবরাহ করা হবে।

এর আগে মঙ্গলবার ভারতের সময় সকাল ৯টা ৫০ মিনিটে ১০টি কন্টেইনারে (প্রতিটিতে ২০ টন) ২০০ টন তরল মেডিক্যাল অক্সিজেন বহনকারী ট্রেনটি ভারতের টাটানগর থেকে বাংলাদেশের উদ্দেশে ছেড়ে আসে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ট্রেনটি বেনাপোল পৌঁছায়। রাতেই কাস্টমসের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বিশেষ ট্রেনটি সিরাজগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেলওয়ে স্টেশনের উদ্দেশে ছেড়ে আসে। এখানে অক্সিজেন নামিয়ে ট্রেনটি এ পথ দিয়েই আবারও ভারতে ফিরে যাবে।

গত রোববার ১০টি কনটেইনারে ২০০ টন তরল মেডিক্যাল অক্সিজেন (এলএমও) নিয়ে অক্সিজেন এক্সপ্রেসের প্রথম চালান বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেলওয়ে স্টেশনে এসে পৌঁছে। আমদানি কারক প্রতিষ্ঠান লিন্ডে বাংলাদেশে সরকারি সহায়তায় করোনা মোকাবেলায় ভারত থেকে এই অক্সিজেন আমদানি করছে।