চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভারতকে পেলেই জ্বলে ওঠেন ম্যাথুজ

শ্রীলঙ্কার সেমির সম্ভাবনা আগেই শেষ হয়ে গেছে। তাদের হিসাবটা এখন খুব সহজ-সরল, পাকিস্তানকে পেছনে ফেলে পঞ্চম স্থানে থেকে বিশ্বকাপ শেষ করা। তাতে ভারতের বিপক্ষে নেমে যথারীতি ব্যর্থ টপঅর্ডার। তাই এগিয়ে আসতে হল এমন একজনকে, ভারতকে পেলেই যিনি জ্বলে ওঠেন। সেই ম্যাথুজের সেঞ্চুরিতে কোহলিদের ২৬৫ রানের লক্ষ্য দিতে পেরেছে লঙ্কানরা।

অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ সবশেষ সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন দেড় বছরের বেশি সময় আগে, ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে। সেটি ছিল ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় শতক। প্রথমটা ছিল তারও তিন বছর আগে, ২০১৪ সালে। ম্যাথুজ তৃতীয় সেঞ্চুরিটি পেলেন ২০১৯ বিশ্বকাপে এসে। প্রিয় প্রতিপক্ষ ভারতকে পেয়ে আবারও জ্বলে উঠলেন লঙ্কান সাবেক অধিনায়ক। দল লড়াইয়ের জন্য পেয়েছে ২৬৪ রানের পুঁজি।

বিজ্ঞাপন

সেমির চার দল ঠিক হয়ে গেছে দুদিন আগেই। লঙ্কানদের মতো হেডিংলিতে ভারত জিতলে লাভ যেটা হতে পারে তা শেষ চারে নিউজিল্যান্ডকে প্রতিপক্ষ পাওয়া। সেজন্য ফর্মে থাকা রোহিত-কোহলির আড়াইশ পেরোনো চ্যালেঞ্জ।

বিজ্ঞাপন

শ্রীলঙ্কা এতদূর যে আসতে পারল, পুরো কৃতিত্বই ম্যাথুজের। ৫৫ রানে ৪ উইকেট হারানোর পর লাহিরু থিরিমান্নেকে নিয়ে লড়াই শুরু তার। পঞ্চম উইকেটে ১২৪ রান তোলার পর ৬৮ বলে ৫৩ করে থিরিমান্নে ফিরে যান ম্যাথুজকে রেখে।

সেখান থেকে একা লড়ে ১১৬ বলে শতক তুললেন ম্যাথুজ, থামলেন ১১৩তে গিয়ে। ১২৮ বলের ইনিংসে ১০ চারের সঙ্গে দুবার বল উড়িয়ে বাউন্ডারি ছাড়া করেছেন এ অলরাউন্ডার।

ভারতের হয়ে যথারীতি সেরা বোলার জাসপ্রীত বুমরাহ। ৩৭ রানে ৩ উইকেট নেয়ার পথে করেছেন উইকেটের সেঞ্চুরি। সেঞ্চুরি করতে তাকে ম্যাচ খেলতে হয়েছে ৫৭টি। বাকি বোলাররা কেউই খালি হাতে ফেরেননি, ভুবনেশ্বর-পান্ডিয়ারা প্রত্যেকেই নিয়েছেন একটি করে উইকেট।

Bellow Post-Green View