চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বড় জয়ে শীর্ষস্থান পোক্ত ম্যানসিটির

জয় পেয়েছে বায়ার্ন, ডর্টমুন্ড ও এসি মিলান

আগামী সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের লড়াইয়ে মাঠে নামবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি। তার আগে নিজেদের রীতিমতো ঝালিয়ে নিল পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা। শনিবার লিগ ম্যাচে ঘরের মাঠে ওয়াটফোর্ডের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত জয় তুলে নিয়েছে তারা। ৩-১ গোলে জিতেছে সিটিজেনরা।

ম্যাচে সিটির হয়ে নজরকাড়া পারফরম্যান্স ইংল্যান্ড তারকা রাহিম স্টার্লিংয়ের। হ্যাটট্রিক করেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

শুধু জয় নয়, একইসঙ্গে খেতাবি লড়াইয়ে তারা চার পয়েন্টের ব্যবধানে এগিয়ে গেল দ্বিতীয় স্থানে থাকা লিভারপুলের থেকে। ৩০ ম্যাচে ৭৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে সিটি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা লিভারপুল অবশ্য একটি ম্যাচ কম খেলেছে।

সিটি জিতলেও, এদিন কিন্তু বড় ধাক্কা খেয়েছে আরেক বড় দল টটেনহ্যাম হটস্পার। প্রথম চারের লড়াইয়ে, অ্যাওয়ে ম্যাচে এগিয়ে থেকেও অবনমনের আওতায় থাকা সাউথাম্পটনের কাছে হেরে যান হ্যারি কেনরা। স্পারদের হার ২-১ গোলে। ৩০ ম্যাচে ৬১ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে তারা। তাদেরকে তাড়া করেছে ম্যানইউ, আর্সেনাল এবং চেলসি।

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে, বুন্দেসলিগায় বিশাল ব্যবধানে জয় পেয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ। ঘরের মাঠে তারা ভি এফ এল উল্ফসবার্গকে হারিয়েছে ৬-০ গোলে। দলের হয়ে রবার্ত লেভানডোস্কি জোড়া গোল ছাড়াও সার্জ নাব্রি, হামেশ রদ্রিগেজ, টমাস মুলার ও জোসুয়া কিমিচ একটি করে গোল করেন।

বায়ার্নের রাতে জিতেছে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডও। তারা স্টুটগার্ডকে হারিয়েছে ৩-১ গোলে। ডর্টমুন্ডের হয়ে মার্কো রিউস, পাকো আলকাসের ও ক্রিস্টিয়ান পুলিসিক একটি করে গোল করেন।

এই জয়ের পর বায়ার্ন ও ডর্টমুন্ডের পয়েন্ট সমান। ২৫ ম্যাচ শেষে উভয় দলের পয়েন্ট ঠিক ৫৭। তবে গোল ব্যবধানে শীর্ষে বায়ার্ন।

ইতালিয়ান লিগে জয় পেয়েছে এসি মিলান। তারা ২-১ গোলে হারায় শিয়েভো ভেরোনাকে। গোল করেছেন লুকাস বিগলিয়া ও ক্রিজিসটফ পিয়াটেক। এই জয়ে পয়েন্ট তালিকার তিনে উঠে এসেছে এসি মিলান। ২৭ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৫১। সমানসংখ্যক ম্যাচে ৭৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে জুভেন্টাস। এক ম্যাচ কম খেলে দ্বিতীয় স্থানে থাকা নেপলির পয়েন্ট ৫৬।

Bellow Post-Green View