চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বড়লোকের আহ্লাদি মেয়ে দীঘি, সঙ্গে আসিফ ইমরোজ!

বাংলা চলচ্চিত্রে সর্বাধিক মুক্তিপ্রাপ্ত ছবির নির্মাতা দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর নতুন ছবি ‘তুমি আছো তুমি নেই’র শুটিং শুরু হয়েছে রবিবার থেকে। ঢাকার অদূরে পূবাইলে চলছে এ ছবির শুটিং। নায়িকা হিসেবে শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন দীঘি!

শিশু থেকে নায়িকা হওয়া দীঘির এটি দ্বিতীয় ছবি। এ ছবিতে দীঘির বিপরীতে বাপ্পীর পরে সাইমনের অভিনয়ের থাকলেও চূড়ান্তভাবে নায়ক হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন আসিফ ইমরোজ।

বিজ্ঞাপন

প্রথমবার জুটি বেঁধে কাজ করছেন তারা। এর আগে শান্ত খানের সঙ্গে ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়াঁভাই’ ছবিতে রেণু চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন দীঘি। ওই ছবিটি ছিল বঙ্গবন্ধুর কৈশোরকাল নিয়ে। এবার পুরোপুরি বাণিজ্যিক ধারার ছবি হচ্ছে ‘তুমি আছো তুমি নেই’। রবিবার থেকে এ ছবির শুটিং শুরু করলেন দীঘি।

পূবাইল থেকে চ্যানেল আই অনলাইনের আলাপে দীঘি বলেন, শুরুতে ভয় লাগছিল পারবো কিনা। মনে হচ্ছিল, ঝন্টু আঙ্কেলের মনের মতো করে কাজ করতে পারবো তো! কিন্তু তিনি আমার কাজে অনেক খুশি হচ্ছেন। তার আন্তরিকতার কারণে আমি ভালোভাবে শুটিং করতে পারছি। পুরো শুটিং ইউনিটের প্রত্যেকেই খুব সহযোগিতা করছেন।

দিঘী বলেন, আমাকে চমৎকারভাবে সবাই ওয়েলকাম করেছে। আমার বিপরীতে আসিফ ইমরোজ ভাইয়াও ভীষণ সহযোগিতা করছেন। আমি কাজটা উপভোগ করছি। ছবিতে নিজের চরিত্র নিয়ে দীঘি বলেন, মা ছাড়া বড়লোকের আহ্লাদি মেয়ের চরিত্র করছি। আমার জন্য চরিত্রটা একেবারে নতুন, ভিন্ন। ১৫ দিনের মতো টানা শুটিং করবো। আশা করছি ছবিটা ভালো হবে।

২০০৯ সালে ‘সুপার হিরো সুপার হিরোইন’ নামের রিয়েলিটি শোতে অংশগ্রহণের মাধ্যমে মিডিয়া জগতে প্রবেশ করেন খুলনার আসিফ ইমরোজ। ছয়টি ছবিতে কাজ করলেও এখনও পর্যন্ত তার দুটি ছবি ‘দবির সাহেবের সংসার’ ও ‘ভালো থেকো’ মুক্তি পেয়েছে। আসিফ অভিনীত মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে ‘মায়া নগর’ নামে আরেক ছবি। এবার শুরু করলেন ‘তুমি আছো তুমি নেই’।

নতুন ছবি প্রসঙ্গে আসিফ ইমরোজ বলেন, দেলোয়ার জাহান ঝন্টু সাহেবের মতো নির্মাতার সঙ্গে কাজ করতে পারছি এটা আমার জন্য অনেক বড় প্রাপ্তির। আমাকে এ ছবির জন্য ডাকলে এক কথায় রাজি হয়েছি। তার মতো নির্মাতার সঙ্গে কাজ করতে গেলে গল্প চরিত্র কী এতো কিছু জানতে হয় না। এছাড়া আমার সঙ্গে দীঘি রয়েছে। সে মেধাবী শিল্পী। অভিনয়ের ব্যাপারে সে অনেক পরিণত। ছোটবেলা থেকেই তার রক্তে অভিনয় মিশে আছে। তার সঙ্গে অভিনয়ের টাইমিং নিয়ে খেলা যাচ্ছে। সবকিছু মিলিয়ে আমরা ভালো কাজ উপহার দেয়ার জন্য শভভাগ দায়বদ্ধ। সেই চেষ্টা দিয়ে কাজ করছি।