চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ব্রহ্মপুত্র আমার সবকিছু: মিতালী মুখার্জি

বাঙালি সংস্কৃতির অন্যতম পীঠস্থান ময়মনসিংহের মেয়ে মিতালী মুখার্জি এখন ঢাকায়। শুক্রবার সিটি ব্যাংক এন এ গুণী শিল্পীদের গানে গানে উপমহাদেশের জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী মিতালী মুখার্জিকে সম্মাননা জানানো হবে।

বিজ্ঞাপন

‘কেউ কোনো দিন আমারে তো কথা দিল না’, ‘এই দুনিয়া এখন তো আর সেই দুনিয়া নাই’ এমন বহু কালজয়ী গানের কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী মিতালী। ছোটবেলার গানের হাতেখড়ি তৎকালীন ময়মনসিংহের প্রখ্যাত সঙ্গীত সাধক ওস্তাদ শ্রী মিথুন দে’র হাতে।

প্রায় দেড় বছর পর বাংলাদেশে এসেই ঢাকার র‌্যাডিসন হোটেলে গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে আলাপচারিতায় গান নিয়ে স্মৃতিচারণ করলেন সদা হাস্যোজ্জল এই গুণী শিল্পী।

বললেন, ব্রহ্মপুত্র আমার বাবা, আমার মা আমার পুরো পরিবার। যেখানেই আমি বাংলাদেশকে দেখি সেখানেই আমি জড়িয়ে যাই। দেড় বছর পর বাংলাদেশে আসলেও মন যেনো এখানেই পড়ে থাকি।

মিতালী মুখার্জি রবীন্দ্রসঙ্গীত, নজরুল গীতি, উচ্চাঙ্গ, গজল, সুফি, ফোক, আধুনিকসহ সঙ্গীতের ভান্ডারকে নিয়ে গেছেন দেশ ও দেশের বাইরের মানুষের কাছে। জয় করেছেন গানপ্রিয় দর্শক-শ্রোতাদের মন।

৮০’র দশকে নির্মাতা আমজাদ হোসেনের কালজয়ী চলচ্চিত্র “দুই পয়সার আলতা”র জনপ্রিয় গান এই দুনিয়া এখন তো আর সেই দুনিয়া নাই’ তার সঙ্গীত জীবনের শ্রেষ্ঠ অর্জন।

১৯৮২ সালে এই গানটির জন্য তিনি পেয়েছিলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার।

পুরনো স্মৃতিচারণ করার পাশাপাশি নতুন সঙ্গীত শিল্পীদের বিকাশের জন্য বড় ইন্সটিটিউটের স্বপ্ন দেখার কথাও বলেন এই গুণী শিল্পী। সঙ্গীত শিল্পী গড়তে নিজেকে উজাড় করে দেওয়ার কথাও জানান তিনি।

সিটিব্যাংক এন এ’র আমন্ত্রণে সম্মাননা গ্রহণ করতে মুম্বাই থেকে দেশ ছুটে এসেছেন তিনি। শুক্রবার বিকেল ৪টায় র‌্যাডিসন ওয়াটার গার্ডেন হোটেলের উৎসব হলে গানে গানে গুণীজন সম্মাননায় সম্মানিত করা হবে সঙ্গীতশিল্পী মিতালী মুখার্জিকে।