চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ব্যাংকের কর্মকর্তারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে ব্যয় বহন করবে ব্যাংক

বেসরকারি ব্যাংকের কোনো কর্মকর্তা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে তার সব ব্যয় বহন করবে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক। আর কেউ সংক্রমিত হয়ে মারা গেলে তার পরিবারকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা দেয়া হবে।

রোববার ব্যাংকের উদ্যোক্তাদের সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকসের (বিএবি) নির্বাহী কমিটির এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

বিএবি’র এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকার ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে। এ কারণে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানই তাদের কার্যক্রম বন্ধ রেখেছে। কিন্তু এ সময় ব্যাংক খোলা রয়েছে। এ অবস্থায় বেসরকারি কোনো ব্যাংক কর্মকর্তা কর্মরত অবস্থায় যে কোনো অসুস্থতা বা কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হলে তার চিকিৎসার সব ব্যয় বহন করবে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক। এছাড়া করোনা সংক্রমিত হয়ে কেউ মারা গেলে তার পরিবারকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা দেওয়া হবে।

বিএবির বিজ্ঞপ্তিতে, এ সময়ে কর্মরত ব্যাংক কর্মকর্তাদের যে কোনো অসুস্থতা বা তাদের কেউ কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হলে প্রত্যেকটি ব্যাংক তাদের স্ব স্ব কর্মকর্তার সম্পূর্ণ চিকিৎসার ব্যয় বহন করবে। এ ছাড়াও সংক্রমিত হয়ে কারো কোনো দুর্ঘটনা হলে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক ওই কর্মকর্তার পরিবারকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা দেবে।

এতে আরও বলা হয়, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশের অর্থনীতিকে সচল রাখতে যেসব বেসরকারি ব্যাংক কর্মকর্তা সরকারের অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মতোই নিজেদের দেশ ও জনগণের সেবায় নিয়োজিত রেখেছেন নিঃসন্দেহে তাদের এ ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও মানবিক।