চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বৈরুত বিস্ফোরণের ১ মাস পর ধ্বংসস্তূপের নিচে প্রাণের স্পন্দন

লেবাননের রাজধানী বৈরুতের বন্দরে বিস্ফোরণের ঠিক এক মাসের মাথায় ধ্বংসস্তুপের নিচে অবিশ্বাস্যভাবে প্রাণের অস্তিত্ব খুঁজে পেয়েছে উদ্ধারকর্মীরা। এরপর সেখানে শুরু হয়েছে খোঁড়াখুঁড়ি। 

বৃহস্পতিবার আন্তজার্তিক গণমাধ্যম আলজাজিরাকে এক উদ্ধারকর্মী জানান, স্ক্যানিং মেশিনের সাহায্যে প্রাণের স্পন্দন ও শ্বাস-প্রশ্বাসের লক্ষণ শনাক্ত করা হয়েছে। গোমায়েজ এলাকায় একটি ভবনের ধ্বংসস্তুপে এই প্রাণের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে সেটি শিশু।

বিজ্ঞাপন

গেল ৪ আগস্ট বৈরুতের বন্দরে একটি বিস্ফোরকের গুদামে ভয়াবহ বিস্ফোরণে শহরের অর্ধেক ধুলিস্যাৎ হয়। এতে নিহত হয় ১৯১ জন এবং আহত হয় ছয় হাজারের বেশি মানুষ।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার সেন্সর ব্যবহারের পর চিলির একটি উদ্ধারকারী দল জানায়, ভবনের ধ্বংসস্তূপের নিচে তাদের সেন্সরে প্রতি মিনিটে ১৮ বার হৃদস্পন্দন এবং শ্বাস-প্রশ্বাস ধরা পড়েছে। জীবিত কাউকে উদ্ধারের আশায় শুক্রবারও ধ্বংসস্তুপ সরানোর কাজ চালিয়েছেন উদ্ধারকারীরা।

স্থানীয় টিভি ফুটেজে দেখা গেছে, জীবিত কারও অবস্থান চিহ্নিত করতে উদ্ধারকারীরাসহ চিলির স্বেচ্ছাসেবীরা মিলে স্ক্যানার ব্যবহার করে ধ্বংসস্তুপের থ্রিডি ছবি নেওয়ার চেষ্টা করছেন।

‘ধ্বংসস্তুপ যত সরিয়ে ফেলা যাবে ততই সঠিক অবস্থান নির্ণয়ে মেশিনে জোর সংকেত পাওয়া যাবে’, বলেন এক উদ্ধারকর্মী।

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা কুকুর এবং মেশিনের উপর নির্ভর করছি। হয়ত সেখানে কিছু নেই। কিন্তু কুকুর যতক্ষণ মানবদেহ থাকার ইঙ্গিত দিচ্ছে আর মেশিন হৃদস্পন্দনের সংকেত দিচ্ছে ততক্ষণ আমরা সন্ধান চালিয়ে যাব।