চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বেয়ারস্টোর সেঞ্চুরিতে হেসেখেলে জিতল ইংল্যান্ড

গত কয়েকটা দিন কঠিনই ছিল ইংলিশ ক্রিকেটের জন্য। দলের অন্যতম সদস্য বেন স্টোকসের পুলিশি গ্রেপ্তার ও ইসিবি দ্বারা ক্রিকেটে সাময়িক নিষেধাজ্ঞার প্রভাব অবশ্য মাঠে পড়তেই দিল না ইংল্যান্ড। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে হেসেখেলে হারানোটা সেটাই বলে। তিনশ ছুঁইছুঁই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ১২ ওভার ও ৯ উইকেট অক্ষত রেখেই জয়ে মাঠ ছেড়েছে ইংলিশরা।

সাউদাম্পটনে শুরুতে ব্যাট করে নির্ধারিত ওভারে ৬ উইকেটে ২৮৮ রান তোলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জবাবে ৩৮ ওভারেই লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে ইংল্যান্ড। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের একটি বৃষ্টিতে ভেসে গেছে। বাকি চারটি জিতে নিল স্বাগতিকরা।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

ওয়েস্ট ইন্ডিজের গড়া চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহটা এসেছিল দলীয় প্রচেষ্টায়। শাই হোপের ৭২ ছাড়া আর কোনও ফিফটি নেই ইনিংসে। তবে ক্রিস গেইলের ৫ ছয় ও এক চারে ২৯ বলে ৪০, কাইল হোপের ৩৩, মারলন স্যামুয়েলসের ৩২, জেসন মোহাম্মেদের ২৫ রানে সংগ্রহটা বাড়তে থাকে।

বিজ্ঞাপন

শেষদিকে সুনীল অ্যামব্রিসের ২৭ বলে অপরাজিত ৩৮ এবং অ্যাশলে নার্সের ৩ চার ২ ছয়ে ১২ বলে অপরাজিত ৩১ রানে সংগ্রহটা চ্যালেঞ্জিং জায়গায় যায়।

কিন্তু রান তাড়া করতে নেমে ইংল্যান্ড সেটি মামুলি প্রমাণ করে ফেলেছে। জেসন রয় ও জনি বেয়ারস্টো উদ্বোধনীতেই ১৫৬ রান তুলে ফেলেন। সেটিও মাত্র ২১.২ ওভারে! ৯৬ রানে এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরা রয়ের অবশ্য সেঞ্চুরি হাতছাড়ার হতাশা সঙ্গী হয়েছে। ১১ চার ও এক ছয়ে ৭০ বলের ইনিংস তার।

তবে সেঞ্চুরি হাতছাড়া করেননি বেয়ারস্টো। শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন ১৪১ রানে। ১৭ চারে ১১৪ বলে সাজানো ইনিংসটিতে নেই কোনও ছয়ের মার। এই সিরিজেই প্রথম ওয়ানডে শতক পাওয়া উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যানের এটি ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস।

বেয়ারস্টোর সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন ১৩৮ রানের জুটিতে অবদান রাখা জো রুট অপরাজিত ছিলেন ৪৬ রানে।

বিজ্ঞাপন