চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বুন্দেসলিগাকে ‘লাল কার্ড’ দেখাতে বলছেন জার্মান রাজনীতিবিদরা

২০১৯-২০ বুন্দেসলিগা মৌসুম চালু হওয়ায় আবারও বাড়বে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ, এমন হুঁশিয়ারি দিয়েছেন জার্মানির একাধিক প্রভাবশালী রাজনীতিবিদ। করোনা পরিস্থিতির মাঝে ফুটবল আয়োজনের কড়া সমালোচনা করেছেন তারা।

শনিবার থেকে দর্শকহীনভাবে শুরু হচ্ছে বুন্দেসলিগার ২০১৯-২০ থেমে থাকা মৌসুম। জার্মানিতে শুরু হওয়ায় আশা জেগেছে ইউরোপের অন্য দেশগুলোতেও ফুটবল মাঠে ফেরার। এমন সংকটপূর্ণ পরিস্থিতিতে ফুটবল আয়োজনের তোড়জোড় কেনো সেটা নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন দেশটির রাজনীতিবিদরা।

বিজ্ঞাপন

‘যদি স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা এই পরামর্শ দিয়ে থাকেন, যদি লিগের খরচ করার মতো ও বুদ্ধি খাটিয়ে চলার মতো অবস্থা থাকে, তবে অবশ্যই নিয়ম মানতে হবে।’ পত্রিকা বিল্ডকে এমন বলেছেন বাভারিয়ান মিনিস্টার প্রেসিডেন্ট মার্কাস সোডের।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘আর যদি নিয়ম অনুসরণ করা না হয়, তাহলে লাল কার্ড দেখতে হবে। ফুটবলের নিয়ম বাস্তব জীবনেও অনুসরণ করতে হবে।’

অগসবুর্গ কোচ হেইকো হেরলিখের বাধ্যতামূলক সাতদিন ট্রেনিং ক্যাম্প কোয়ারেন্টাইন না মানার পরদিনই এ কথা বললেন মার্কাস সোডের। সুপারমার্কেটে টুথপেস্ট ও স্কিন ক্রিম কিনতে গিয়ে কোয়ারেন্টাইনে যেতে হচ্ছে তাকে। শনিবার ভলফসবুর্গের বিপক্ষে মাঠে থাকা হবে না তার।

গত শুক্রবার জার্মান ক্লাব ভেরডার ব্রেমেন জানিয়েছে একজন খেলোয়াড়কে দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। সেই খেলোয়াড়ের নিকট স্বজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মের্কেলের লিগ শুরুর ঘোষণার পরদিনই রাস্তায় নেমে লাইভ করার কারণে লিগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে হার্থা বার্লিনের আইভরি কোস্টের খেলোয়াড় সলোমন কালুকে।