চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিয়ের পরেও মায়ের সঙ্গে থাকতে চান সারা

‘সারা জীবন মায়ের সঙ্গেই থাকতে চাই, এমনকি বিয়ের পরেও’। বছর দুয়েক আগে এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছিলেন বলিউড অভিনেত্রী সারা আলি খান।

সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) মা অমৃতা সিংয়ের জন্মদিনে আবারও সেই কথাটির পুনরাবৃত্তি করলেন সারা।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

জীবনের বেশির ভাগ সময়ই মা অমৃতা সিংয়ের সঙ্গে কেটেছে অভিনেত্রী সারা আলি খানের। সাইফ আলি খানের সঙ্গে অমৃতা সিংয়ের যখন বিচ্ছেদ হয়, সারার বয়স তখন মাত্র ৯ বছর। এরপর মায়ের কাছে থেকে, তার আদর্শেই ধীরে ধীরে বেড়ে ওঠেন অভিনেত্রী। তাই মাকে ঘিরেই আবর্তিত সারার জীবন।

বিজ্ঞাপন

এখনও যখন শুটিং কিংবা অন্য কোন কাজে মাকে ছেড়ে কিছুদিন দূরে থাকতে হয় তখন মা-মেয়ে দুজনই খুব কষ্ট পান। আর তাইতো মাকে একা রেখে কোথাও যেতে রাজি নন সারা। এমনকি বিয়ের পরেও অমৃতার সঙ্গেই থাকতে চান অভিনেত্রী।

‘কিন্তু এই কথাটা বললে মা আমার উপর রেগে যায় কারণ আমার বিয়ে নিয়ে অনেক কিছু ভেবে রেখেছেন।’ এমনটাই এক সাক্ষাৎকারে জানান সারা।

মা অমৃতা যেমন সবচেয়ে ভাল বন্ধু সারার, ঠিক তেমনই তাকে যমের মতো ভয় পান এই অভিনেত্রী। তবে বরাবরই মায়ের সঙ্গে সময় কাটাতে খুব পছন্দ করেন সারা।

বরুন ধাওয়ানের বিপরীতে সর্বশেষ ‘কুলি নাম্বার ওয়ান’ সিনেমাতে দেখা গিয়েছিল সারাকে। যেটি তেমন একটা সাড়া ফেলতে পারেনি দর্শক মহলে। তবে অভিনেত্রীর পরবর্তী সিনেমা ‘আতরাঙ্গি রে’ নিয়ে দর্শকরা বেশ আশাবাদী।