চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিয়েতে গিয়ে লাশ হলেন তারা

আরও ৪ জনের মরদেহ উদ্ধার

একেএম মহিম:
সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার রফিনগর ইউনিয়নের কালিকুটা হাওরে নৌকা ডুবির ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৮ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে ৪ জনের পর ও বুধবার সকালে আরও ৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। ওই ঘটনায় এখনও ২ জন নিখোঁজ রয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

নিহতরা হলেন; রফিনগর ইউনিয়নের মাছিমপুর গ্রামের আরজ আলী’র স্ত্রী রইতনু নেছা (৩৫), একই গ্রামের জাসদ মিয়ার মেয়ে শান্তা বেগম (৪), চরনাচর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামের করিমা বেগম (৬২) ও নোয়ার চর গ্রামের আসাদ মিয়া (৬)।

বিজ্ঞাপন

মাছিমপুর গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে শামীম (৩), একই গ্রামের বদরুল মিয়ার ছেলে আবিদ (৪), নোয়ারচর গ্রামের আফাজালে ছেলে সোহান (২) ও চরনারচর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামের ফিরোজ আলীর ছেলে আজম (২)।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রফিনগরের ইউনিয়নের মাছিমপুর থেকে নৌকায় করে চরনারচর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামে যাচ্ছিলেন নিহতরা। এ সময় কালিকুটা হাওরে ঝড়ের কবলে পড়ে ডুবে যায় নৌকাটি। ২২ জন যাত্রী সে সময় সাঁতার কেটে পাড়ে উঠতে সক্ষম হন।

স্থানীয়রা জানান: আজ বুধবার পেরুয়া গ্রামে ফিরোজ আলীর ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠান ছিল। মূলত এই বিয়েতে অংশ নিতে এক দিন আগেই রওয়ানা হয় মাছিমপুরে থাকা ফিরোজ আলীর স্বজনরা। যাওয়ার পথে কালিকটঠা হাওরে ওই নৌকা ডুবির ঘটনা ঘটে।

দিরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ দেব বলেন: ‘সিলেট ও সুনামগঞ্জের ডুবুরি দলের সদস্যরা এলাকাবাসীর সহযোগিতায় হাওরে নিখোঁজদের উদ্ধারে তৎপরতা চালাচ্ছেন।

Bellow Post-Green View