চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিস্ফোরক শতকে ওয়ার্নারের রেকর্ড

আমির-ইমরান-রিয়াজদের দুঃস্বপ্ন উপহার দেওয়ার পথে বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার এক রেকর্ড গড়লেন। তৃতীয় ও শেষ টেস্টে মাত্র ৭৮ বলে শতকের ঘরে পৌছান এই বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান। আর প্রথম সেশনেই এই দুর্দান্ত প্রদর্শনীতে গড়েছেন অসামান্য এক রেকর্ড, প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে প্রথম সেশনেই সেঞ্চুরি হাঁকানো।

পাকিস্তানের বোলারদের নাস্তানুবুদ করে ওয়ার্নার যখন তার শতক উৎযাপন করছেন প্রথম ইনিংসের তখন খেলা হয়েছে মাত্র ২৬.২ ওভার। লাঞ্চ বিরতির আগেই এই অসি ওপেনারের ইনিংসটি পরে আর দীর্ঘ করতে পারেন নি। এরপর আর মাত্র ১৩ রান যোগ করেই ওয়াহাব রিয়াজের বলে উইকেটের পেছনে সরফরাজ আহমেদের হাতে ধরা পরেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে এই ৩০ বছর বয়সী অসি ওপেনার পেয়েছেন তার ১৮ তম টেস্ট শতক, কোন ওভার বাউন্ডারি ছাড়া তার ইনিংসে চারের মার ছিলো ১৭টি।

তবে টেস্টের প্রথম দিনের ওপেনিং সেশনেই শতক পাওয়ার রেকর্ড কিন্তু তার একজন স্বদেশীরও রয়েছে। যা ৮৭ বছর আগে করেছিলেন কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান ব্র্যাডম্যান। তবে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে এবারই প্রথম।

বিজ্ঞাপন

অসাধারণ অর্জনের পরও ২০০১ সাল থেকে প্রথম ইনিংসেই দ্রুত সেঞ্চুরির রেকর্ডে সাবের্ক ভারতীয় ওপেনার বিরেন্দর শেবাগকে টেক্কা দিতে পারেননি তিনি। দিল্লির এই ব্যাটসম্যান ২০০৬ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সেন্ট লুসিয়াতে মাত্র ২৫.৩ ওভারেই তিন অঙ্কে পৌঁছান। অর্থাৎ ৫ বল এগিয়েই রইলেন শেবাগ।

অসিদের সহ-অধিনায়ক ওয়ার্নার ক্যারিয়ারের ৬০ টেস্টে এখন ৪৯.১১ গড়ে মোট রান করেছেন ৫ হাজার ২০৬।

তবে দ্রুততম সেঞ্চুরির ক্ষেত্রে এর আগেও কিন্তু রয়েছে আরও ১৬ টি ইনিংস। ২০১১-তে ভারতের বিপক্ষে ৬৯ বলে শতক রয়েছে ওয়ার্নারের। আর ৭৮ বলেই এখন শতক হলো ৫টি। সর্বনিম্ন স্কোরটি নিউজিল্যান্ডের ব্র্যান্ডন ম্যাককলামের। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেই ২০১৫/১৬ সেশনে যা করেছিলেন তিনি। ক্রাইস্টচার্চের মাঠে তার ইনিংসটি মাত্র ৫৪ বলের।

পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩ ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম দুইটিতে জিতে সিরিজ নিশ্চিত করে নিয়েছে স্বাগতিকরা। প্রথমটিতে ৩৯ রানের জয়ের পর দ্বিতীয়টি জিতে অসিরা ইনিংস ও ১৮ রানে।

Bellow Post-Green View