চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

গ্ল্যামারের আড়ালে বিষণ্ণতায় ভুগেছেন যে তারকারা

তারকাদের ঝলমলে জীবন দেখে মনে হতেই পারে যে তাদের জীবনে কোনো দুঃখ নেই, হতাশা নেই। কিন্তু পর্দার গ্ল্যামারাস তারকাও দিন শেষে একজন সাধারণ মানুষ যার আবেগ, অনুভূতি, হতাশা, অপ্রাপ্তির অনুতাপ আছে। তাই তারকারাও মাঝে মাঝে বিষণ্ণতার কবলে পড়েন। অনেকের ক্যারিয়ারই শেষ হয়ে যায় বিষণ্ণতার গ্রাসে। আবার কেউ কেউ বিষণ্ণতা কাটিয়ে আরও সফল হয়ে উঠেন। তেমনই কিছু তারকাকে নিয়ে এই ফিচারটি সাজানো হয়েছে যারা বিষণ্ণতাকে জয় করে সুখী জীবন যাপন করছেন।

দীপিকা পাড়ুকোন: ক্যারিয়ারে একের পর এক সফলতা, রণবীর সিং এর সঙ্গে পাঁচ বছর প্রেমের পরে বিয়ে, সব মিলিয়ে ভালো আছেন দীপিকা। কিন্তু দীপিকার জীবনেও এসেছিল বিষণ্ণতা। পর্দায় মিষ্টি হাসিতে বিষণ্ণতাকে আড়াল করতে পারলেও বাস্তব জীবনে কঠিন সময় কাটাতে হয়েছে তাকে। চিকিৎসা নিয়ে বিষণ্ণতাকে জয় করতে পেরেছেন তিনি। বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে এখনও সেই দিনগুলোর অভিজ্ঞতা বলেন দীপিকা।

বিজ্ঞাপন

করণ জোহর: একটি সাক্ষাৎকারে করণ জোহর জানিয়েছেন বিষণ্ণতায় আক্রান্ত হওয়ার কথা। ভবিষ্যৎ নিয়ে ভয়, মনের মতো জীবন সঙ্গী না পাওয়া, ভালোবাসাহীন জীবন এবং আরও নানা কারণে বিষণ্ণতা গ্রাস করেছিল তাকে। থেরাপি নিয়ে বিষণ্ণতা কাটিয়ে উঠেছিলেন করণ।

ইয়ো ইয়ো হানি সিং: বলিউডে গানের ধারাকে বদলে দিয়েছেন ইয়ো ইয়ো হানি সিং। একের পর এক হিটে গানে ক্যারিয়ার যখন তুঙ্গে, তখনই বিষণ্ণতা জেঁকে ধরে তাকে। এমনকি এক বছর টানা ওষুধ খেয়েও বিষণ্ণতা কমেনি তার। ‘বাইপোলার ডিজঅর্ডার’ ছিল তার। সবার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে, কাজ করা বন্ধ করে নিজেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছিলেন তিনি। ২০০০০ মানুষের সামনে স্টেজ পারফর্ম করা মানুষটি ৪-৫জন মানুষের সামনে যেতে ভয় পেতেন।

বরুণ ধাওয়ান: পর্দায় মজার সব চরিত্রে দর্শক মাতানো তারকা বরুণ ধাওয়ান। কিন্তু তিনিও বিষণ্ণতার কবলে পড়েছিলেন ‘বদলাপুর’ ছবির শুটিং এর সময়। মানসিক স্বাস্থ্য ভালো করার জন্য চিকিৎসকের শরণাপন্ন হয়েছিলেন তিনিও।

আনুশকা শর্মা: ২০১৫ সালে বিষণ্ণতা নিয়ে কথা বলেছিলেন আনুশকা। জানিয়েছেন, তার পরিবারের অনেকে এবং তিনি নিজেও বিষণ্ণতায় ভুগেন মাঝে মাঝে। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে খোলামেলা কথা বলতে চান তিনি। কারণ, এটি একটি স্বাভাবিক বিষয়, লজ্জার বা লুকোনোর নয়।

জাস্টিন বিবার: কানাডিয়ান পপ গায়ক জাস্টিন বিবার বর্তমানে বিষণ্ণতায় ভুগছেন। মানসিক স্বাস্থ্যের অবনতি হওয়ায় নিজেকে কাজ থেকে দূরে রেখেছেন তিনি।

সেলেনা গোমেজ: জাস্টিন বিবারের প্রাক্তন প্রেমিকা সেলেনা গোমেজও বিষণ্ণতায় ভুগেছেন গত বছর। এজন্য তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। বেশ কিছুদিন চিকিৎসা নেয়ার পর এখন তিনি কিছুটা সুস্থ।

অ্যাঞ্জেলিনা জোলি: কৈশোরে বিষণ্ণতায় ভুগেছেন অ্যানজেলিনা জোলি। বেশ কিছু সাক্ষাৎকারে সেই দিনগুলোর কথা বলেছেন তিনি। এরপর ধীরে ধীরে অন্ধকার থেকে আলোর জগতে এসেছেন তিনি।

লেডি গাগা: অস্কার জয়ী তারকা লেডি গাগা তার জীবন সম্পর্কে ভক্তদের সব কিছুই জানান। জানিয়েছেন, বিষণ্ণতায় ভুগতে হয়েছিল তাকেও। এমনকি এখনও মাঝে মাঝে বিষণ্ণতা পেয়ে বসে থাকে। কিন্তু সেটা কাটিয়ে উঠতে পারেন তিনি। পিঙ্ক ভিলা