চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘বিষক্রিয়ায় অসুস্থ’ রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা জার্মানিতে

‘বিষ প্রয়োগে’ গুরুতর অসুস্থ রাশিয়ার বিরোধীদলীয় নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনিকে চিকিৎসার জন্য জার্মানিতে নেওয়া হয়েছে। সাইবেরিয়া থেকে তাকে সেখানে নেওয়া হয়।

তার সমর্থকদের দাবি, চায়ে বিষ মিশিয়ে দেয়ায় তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ার পর কোমায় চলে গেছেন। তারা প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে এই অপরাধ গোপনের চেষ্টার অভিযোগও তুলেছে।

বিজ্ঞাপন

ওমস্কে নাভালনিকে চিকিৎসা দেওয়া চিকিৎসকরা শুক্রবার জানিয়েছেন, তিনি এতই অসুস্থ যে নড়াচড়াও করানো যায় না।

বিজ্ঞাপন

পরে অবশ্য জানানো হয়, তার অবস্থা স্থিতিশীল। নাভালনির সঙ্গে তার স্ত্রী ইউলিয়াও গেছেন জার্মানিতে।

‘এনজিও সিনেমা অব পিস’ এর একটি মেডিক্যাল বিমানে করে তাকে বার্লিনে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে একটি চ্যারিটি হাসপাতালে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

শনিবার সকালে নাভালনির মুখপাত্র কীরা ইয়ারমিশ টুইটে জানান, অ্যালেক্সির বিমান বার্লিনের উদ্দেশে যাত্রা করেছে। তাকে সমর্থন জানানোর জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। অ্যালেক্সির জীবন ও স্বাস্থ্যের জন্য সংগ্রামের শুরু এখনই।

বিজ্ঞাপন

গত বৃহস্পতিবার টমস্ক থেকে মস্কো যাওয়ার পথে ফ্লাইটেই নাভালনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। ওমস্কে তার বিমানকে জরুরি অবতরণ করতে হয়।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ছবিতে তাকে উড়ানের আগে টমস্ক বিমানবন্দরের ক্যাফেতে কাপ থেকে কিছু পান করতে দেখা যায়। তার সমর্থকদের সন্দেহ কাপের ওই চায়ে বিষাক্ত কিছু মেশানো হয়েছিলো।

ওমস্কের ওই হাসপাতালের উপ-প্রধান চিকিৎসক আনাতোলি কালিনিচেনকোকে উদ্ধৃত করে বার্তা সংস্থা ইন্টারফ্যাক্স জানিয়েছে, রোগীর অবস্থা স্থিতিশীল।

এর আগে ডাক্তাররা বলেছিলেন, তার শরীরে কোনও বিষ পাওয়া যায়নি। ধারণা করেছিলেন রক্তে শর্করার কারণে সৃষ্ট ‘বিপাকীয় ব্যাধির’ কারণে এমন হতে পারে।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কট্টর সমালোচক নাভালনি দেশটির বেশকিছু সরকারি দুর্নীতির খবর ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ করে আলোচনায় এসেছেন।

সেজন্য বেশ কয়েকবার জেলও খেটেছেন তিনি।