চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিশ্বে মৃগী রোগে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় সাড়ে ছয় কোটি

এভারকেয়ার হসপিটালে আন্তর্জাতিক মৃগী রোগ দিবস উদযাপিত

বিশ্বে মৃগী রোগে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় সাড়ে ছয় কোটি। বিশ্বব্যাপী ৪০ ধরনেরও বেশি মৃগীরোগ আছে। যাদের মাঝে ৮০% মানুষই স্বল্পোন্নত ও অনুন্নোত দেশে বসবাস করে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন এক বা একাধিক অ্যান্টি-এপিলেপটিক ওষুধের মাধ্যমে প্রায় ৭০% মৃগীরোগীর ক্ষেত্রেই এই রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি এভারকেয়ার হসপিটাল ঢাকা’র নিউরোলজি বিভাগে আন্তর্জাতিক মৃগী রোগ দিবস উদ্‌যাপন উপলক্ষে বিশেষজ্ঞরা এসব মতামত তুলে ধরেন।

বিজ্ঞাপন

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মেডিকেল সার্ভিসের পরিচালক ডা. সঞ্জয় কে. পাঠারে, সেই সাথে ছিলেন নিউরোলজি ও অন্যান্য বিভাগের কনসালটেন্টরা ও হাসপাতালের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

জানানো হয়, এভারকেয়ার হসপিটাল ঢাকা’য় আউটপেশেন্ট ও ইনপেশেন্ট-বেজড সকল মেডিক্যালি রেসপনসিভ এপিলেপসি রোগীদের জন্য সব প্রয়োজনীয় ডায়াগনস্টিক ও চিকিৎসা সুবিধা রয়েছে; সেই সাথে হাসপাতালে একটি পূর্ণাঙ্গ এপিলেপসি ক্লিনিক ও ইইজি মনিটরিং সুবিধাও শীঘ্রই চালু হচ্ছে।

এভারকেয়ার এই রোগ সম্পর্কে রোগীদের সচেতনতামূলক প্রোগ্রামগুলোও পর্যায়ক্রমে প্রচার করে থাকে। এপিলেপসি সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করার এবং এর প্রভাব সম্পর্কে বাংলাদেশের মানুষকে আরো অবগত করার আরেকটি পদক্ষেপ ছিলো এভারকেয়ারের এই আয়োজন।

সিনিয়র কনসালটেন্ট, নিউরোলজিস্ট ও এপিলেপসি বা মৃগীরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. আলিম আক্তার ভূঁইয়া, এভারকেয়ার হসপিটাল ঢাকা’র নিউরোলজি বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট ও কোঅর্ডিনেটর- ডা. খন্দকার মাহবুবর রহমান এবং সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. সন্দীপ কুমার দাশ এপিলেপসি বা মৃগীরোগের বিভিন্ন দিক সম্পর্কে তুলে ধরেন।