চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিশ্বের শীর্ষ বিজ্ঞানীদের তালিকায় বাংলাদেশের অধ্যাপক এম এ রশীদ

বিশ্বের বিজ্ঞানীদের শীর্ষ তালিকায় মর্যাদাপূর্ণ স্থান লাভ করেছেন বাংলাদেশের অধ্যাপক ড. এম এ রশীদ।

তিনি স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ (এসইউবি)-এর ফার্মাসি বিভাগের উপদেষ্টা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাসিউটিক্যাল কেমিস্ট্রি বিভাগের সাবেক অধ্যাপক ও ডিন।

আন্তর্জাতিক খ্যাতনামা সংস্থা এডি সায়েন্টিফিক ইন্ডেক্স কর্তৃক সম্প্রতি প্রকাশিত ২০২১ সালের প্রতিবেদনে সারা বিশ্বের ২০৬টি দেশের ১৩ হাজার ৫৩১টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭ লাখেরও বেশি বিজ্ঞানীর সাইটেশন ও অন্যান্য ইনডেক্সের ভিত্তিতে গত ১০ অক্টোবর বিশ্বব্যাপী এ তালিকাটি প্রকাশ করে।

তালিকাটির ফার্মাসিউটিক্যাল কেমিস্ট্রি বিভাগে ড. এম এ রশীদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং বাংলাদেশ উভয় ক্যাটাগরিতেই প্রথম স্থান অধিকার করেন। এমনকি এশিয়া ও বৈশ্বিক ক্যাটাগরিতেও তিনি যথাক্রমে চতুর্থ ও পঞ্চম স্থান লাভ করেন।

বিজ্ঞাপন

অধ্যাপক এম এ রশীদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি অনুষদে দীর্ঘকাল অধ্যাপক ও ডিন হিসেবে দায়িত্ব পালনের পর ২০০৪ সালে স্টেট ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশে যোগদান করেন।

অন্যদিকে এসইউবি’র ফার্মাসি বিভাগের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই তিনি এ বিভাগের উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এডি সায়েন্টিফিক ইন্ডেক্সর র‍্যাংকিংয়ে এ মর্যাদাপূর্ণ স্থান লাভ করায় ইতোমধ্যে তাকে এসইউবি পরিবার ও এর ট্রাস্টি বোর্ড অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছে।

বিশ্বের অতি মর্যাদাপূর্ণ এ তালিকায় তার এ সম্মানজনক স্বীকৃতির প্রতিক্রিয়া হিসেবে তিনি বলেন, সংস্কৃতিগতভাবেই বৈজ্ঞানিক গবেষণার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অনেকখানি পিছিয়ে আছে। এ অবস্থায় অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জনের চেষ্টার পাশাপাশি গবেষণার উপরও আমাদেরকে বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে। আর এ ধরনের স্বীকৃতি অবশ্যই আমাদের গবেষকদেরকে অধিকতর উৎসাহিত ও অনুপ্রাণিত করবে।

এ প্রসঙ্গে তিনি জানান, এসইউবির ফার্মাসি বিভাগ এটিকে এ দেশের অন্যতম ফার্মাসিউটিক্যাল গবেষণা কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছ। এ ব্যাপারে তিনি সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি বলেন, মৌলিক গবেষণা ব্যতীত কখনোই এবং কিছুতেই বিশ্ববিদ্যালয়ের পর্যায়ের উচ্চতর শিক্ষা পূর্ণাঙ্গতা পেতে পারে না।

বিজ্ঞাপন